দেশ 

উন্নাও কান্ডে জড়িয়ে গেল যোগী মন্ত্রীসভার এক সদস্যের জামাইয়ের নাম

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বহু চর্চিত  উন্নাও কাণ্ডে এ বার নাম জড়িয়ে গেল আরও এক বিজেপি নেতার নাম। রবিবার নির্যাতিতার গাড়ি ‘দুর্ঘটনা’র কবলে পড়লে ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিংহ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন নির্যাতিতার কাকা মহেশ সিংহ। সেই এফ্আই আরে অন্যান্য আর কয়েকজনের সঙ্গে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি কর্মী তথা উন্নাওয়ের একটি ব্লকের সভাপতি অরুণ সিংহের নামও রয়েছে।

অভিযুক্তদের তালিকায় সাত নম্বরে নাম রয়েছে অরুণ সিংহের। কুলদীপ সেঙ্গারের ঘনিষ্ঠ সহযোগী বলে পরিচিত তিনি। ধর্ষণ মামলায় কুলদীপ সেঙ্গার এবং তাঁর ভাই গ্রেফতার হওয়ার পরেও, এ বছর লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ এবং দলের সাংসদ সাক্ষী মহারাজের সঙ্গে এক মঞ্চে দেখা যায় তাঁকে।

তাঁর শ্বশুর রণবেন্দ্রপ্রতাপ সিংহ ওরফে ‘ধুন্নি ভাইয়া’ যোগী আদিত্যনাথ সরকারের কৃষিমন্ত্রী। ফতেপুর থেকে নির্বাচিত হয়ে যোগী সরকারে মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছেন রণবেন্দ্র। নির্যাতিতার গাড়িতে ধাক্কা মেরেছিল যে ঘাতক ট্রাক, তার চালকও এই ফতেপুরেরই বাসিন্দা। তবে দু’জনের মধ্যে কোনও সংযোগ ছিল কি না এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

নির্যাতিতার ‘দুর্ঘটনা’র তদন্তভার ইতিমধ্যেই সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ঘাতক ট্রাকটির মালিক দেবেন্দ্র কিশোর, চালক আশিস লাল এবং ক্লিনার মোহনকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তবে রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে তাদের কোনও যোগাযোগ নেই বলে দাবি করেছেন ট্রাক চালক আশিস লালের আত্মীয় বাবুলাল। ট্রাকের মালিক দেবেন্দ্র কিশোরের দাদা নন্দকিশোর লাল সমাজবাদী পার্টির প্রাক্তন কর্মী। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে সিবিআই।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment