জেলা 

ডোমকলের পর এবার তৃণমূল পরিচালিত আর এক পুরসভায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনল তৃণমূল কাউন্সিলাররা ; কেন অনাস্থা ? নেপথ্যে কে ? জানতে হলে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : লোকসভা ভোটের পর থেকে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নতুন করে দলকে সাজাতে চাইলেও তা সম্ভব হচ্ছে না দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কারণে । আর দলের মধ্যে এই অন্তদ্বন্দ্ব এমন প্রবল আকার ধারণ করেছে যে এর ফলে অনেক ভাল ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতা –কর্মীরা শিকার হয়ে পড়েছেন । কিন্ত একদিকে বিজেপির আগ্রাসন অন্যদিকে দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে দিশেহারা হয়ে পড়েছে তৃণমূলের নেতৃত্ব । ডোমকল পুরসভার পর এবার বসিরহাট পুরসভায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছায়া পড়ল ।

বসিরহাট এলাকায় এখনও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবল দাপট রয়েছে । সেই দাপটকে ভেঙে দিতে বিজেপি অনেক দিন থেকেই সক্রিয় । কিন্ত বিজেপি এককভাবে এই অঞ্চলে কিছু করে উঠতে পারেনি । তবে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এমন এক জায়গায় এসে পৌছে গেছে যেকোনো সময় বিজেপি এখানে প্রভাব বাড়াতে পারে ।

দলের এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কোপে পড়লেন খোদ বসিরহাট পুরসভার চেয়ারম্যান তপন সরকার ।সোমবার বসিরহাট পুরসভার তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারম্যান তপন সরকারের অপসারণের দাবিতে ১২ জন কাউন্সিলর অনাস্থা পেশ করেন মহকুমা শাসকের কাছে। এই পুরসভায় তৃণমূলের মোট কাউন্সিলার ১৬ জন । তার মধ্যে ১২ জন অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করেছেন ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে পুরসভার চেয়ারম্যান তপন সরকারের ভাবমূর্তি নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই । বরং এলাকার মানুষ তাঁর কাজকর্মে সন্তুষ্ট তা সত্ত্বে কেন এ ধরনের অনাস্থা তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন । জানা গেছে , এই অনাস্থার পেছনে রয়েছেন বসিরহাট দক্ষিণের বিধায়ক দীপেন্দু বিশ্বাস। তাঁর কলকাঠিতেই ১২ কাউন্সিলার তপন সরকারকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সরাতে তৎপর হয়েছেন ।

বিশেষ সূত্রে খবর ,দীর্ঘদিন ধরেই বসিরহাট পুরসভার এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব চলছে। একদিকে চেয়ারম্যান অন্যদিকে বিধায়ক। চেয়ারম্যানের সঙ্গে বিধায়কের বহু ক্ষেত্রেই অন্তর্দ্বন্দ্ব দেখা যায়। চেয়ারম্যান দাবি করেন, অনেক ক্ষেত্রে তাঁর কাজে বাধা দেওয়া হচ্ছে। বসিরহাট পুরসভার চেয়ারম্যান তপন সরকারের সুনাম রয়েছে এলাকায়। দলেও তাঁর যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। সেটাই যেন প্রথম থেকে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে তপনবাবুর।

চেয়ারম্যান বলেন, তৃণমূলের উর্ধতন নেতৃত্বের কাছে তা জানিয়েও ফল হয়নি। উপরন্তু চেয়ারম্যানের দিকেই আঙ্গুল তুলেছেন কিছু কাউন্সিলর।  উল্লেখ্য, বসিরহাট পুরসভার মোট ২৩ জনের মধ্যে ১৬ জন কাউন্সিলর তৃণমূল কংগ্রেসের। বাকি ৭ জন বিজেপি ও কংগ্রেস কাউন্সিলর। এদের মধ্যে ১২ জন তৃণমূল কংগ্রেসের কাউন্সিলার তৃণমূল চেয়ারম্যান তপন সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনলেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment