কলকাতা 

২০২১-র বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে বাংলার দশ হাজার গ্রামে গিয়ে দলের নেতাদের জনসাধারণের অভাব অভিযোগ শোনার নির্দেশ দিলেন মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ২০২১ সালের বিধানসভায় বাংলায় ক্ষমতাকে ধরে রাখার লক্ষ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জনসংযোগকেই গুরুত্ব দিতে চলেছেন । আসলে মমতার সাফল্যের নেপথ্যে এই জনসংযোগ বরাবরই কাজ করেছে। সেই পন্থাকেই আবার নতুন করে কাজে লাগাতে চাইছেন তিনি । আজ নজরুল মঞ্চে দলের জনপ্রতিনিধি ও কর্মীদের সঙ্গে এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্তের কথা তিনি ঘোষণা করেন । প্রশান্ত কিশোরের নির্বাচনী কৌশলকে কাজে লাগিয়ে অভাবনীয় কর্মসূচি নিয়েছেন মমতা ।

আগামী ১০০ দিনে দলের এক হাজারের বেশি নেতা-কর্মীকে পৌঁছতে হবে ১০ হাজারের বেশি গ্রামে, রাতও কাটাতে হবে সেখানে। নজরুল মঞ্চে সভা শেষ হওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আগামী ১০০ দিনে তৃণমূলের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও ‘বরিষ্ঠ’ নেতারা পশ্চিমবঙ্গের ১০ হাজারেরও বেশি গ্রামে যাবেন। গ্রামগুলিতে গিয়ে কী করবেন তৃণমূল নেতারা? সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন, তাঁদের অভাব-অভিযোগের কথা শুনবেন, দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন, সম্ভব হলে স্থানীয় বিশিষ্ট জনদের সঙ্গে কথা বলবেন এবং রাতে কর্মীদের সঙ্গে একসঙ্গে বসে খাওয়া-দাওয়া করবেন। এতেই শেষ নয়, সেই গ্রামে রাতও কাটাতে হবে।

জনসাধারণ কী চাইছেন তৃণমূলের সরকারের কাছ থেকে— প্রায় সাড়ে তিন মাস ধরে হাজার দশেক গ্রামে রাত কাটানো তৃণমূল নেতাদের কাছ থেকে সে খবর নেবেন তৃণমূলনেত্রী।

এদিনের সভায় দলের বিধায়করা ছাড়াও তৃণমূলের জেলা সভাপতিরা এবং বিভিন্ন স্তরের পদাধিকারীরাও উপস্থিত ছিলেন। সংসদের অধিবেশন না চললে সাংসদরাও হাজির থাকতেন বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment