দেশ 

যোগীর রাজ্যে জয় শ্রীরাম না বলার কারণে কিশোরের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রামের নামে রণহুঙ্কার বন্ধ করার জন্য দেশের ৪৯ জন প্রথম সারির বুদ্ধিজীবী প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি লিখেছেন । তা নিয়ে পাল্টা মোদীর অনুরাগী ৬১জন বুদ্ধিজীবী কটাক্ষ করে ‘ স্বঘোষিত অভিভাবক ‘ বলেছেন । কিন্ত বাস্তব সত্য হল জয় শ্রীরাম ধ্বনি না বলার জন্য মুসলিম ও দলিতদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে । গণপিটুনির মত ঘটনা ঘটছে । এবার জয় শ্রীরাম ধ্বনি না বলার কারণে যোগীর রাজ্যে এক ১৫ বছরের মুসলিম কিশোরের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া অভিযোগ উঠেছে ।

জানা গেছে,উত্তর প্রদেশের চান্দৌলি জেলায় এক ১৫ বছরের মুসলিম কিশোরকে জয় শ্রীরাম বলতে জোর করা হয় বলে অভিযোগ। কিন্তু কিশোর তাতে রাজি না হওয়ায় তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

যদিও পুরো ঘটনাই অস্বীকার করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিস। চন্দৌলি পুলিসের দাবি কিশোর নিজের গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল। এর সঙ্গে জয় শ্রীরাম স্লোগানের কোনও সম্পর্ক নেই। চন্দৌলির পুলিস সুপার সন্তোষ কুমার সিং দাবি করেছেন, কিশোর মিথ্যে অভিযোগ করছে। একাধিক ব্যক্তিকে একাধিক কথা বলছে কিশোর এমনই দাবি করেছেন পুলিস সুপার। তবে কিশোরের ৪৫ শতাংশ শরীর পুড়ে গিয়েছে সে ঘটনা তিনি মেনে নিয়েছেন। তাঁকে গ্রামীণ হাসপাতালে থেকে বেনারসের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল সেখানেই এই জয় শ্রীরাম স্লোগানের অভিযোগ করেছে কিশোর।

সেখানে কিশোর পুলিসকে জানিয়েছে চার দুষ্কৃতী তাকে বাইকে করে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিল। এবং জয় শ্রীরাম বলতে জোর করছিল। সেটা না করায় তার গায়ে আগুন দিয়ে দেয়। কিন্তু এই ঘটনার সত্যতা এখনও জানা যায়নি।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment