কলকাতা 

‘‘প্রথম যে চিঠিটা দেওয়া হয়েছিল, সেটি অত্যন্ত স্বাভাবিক। দেশের পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন হয়ে শুভচিন্তাসম্পন্ন মানুষজন এটা লিখেছেন। কিন্তু তার পরবর্তীতে যে চিঠিটি গিয়েছে সেটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সম্পর্কিত” : শঙ্খ ঘোষ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে মানুষ মারা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি লিখেছিলেন অপর্ণা সেনরা । পাল্টা জয় শ্রীরাম ধ্বনি বলার অপরাধে জেলে কেন পোরা হচ্ছে ? তা নিয়ে পাল্টা চিঠি দিয়েছেন ৬১ জন বুদ্ধিজীবী । চিঠি পাল্টা চিঠির লড়াই ঘিরে রীতিমত দেশের রাজনীতি ও সংস্কৃতি জগৎ সরগরম । ঠিক এই প্রেক্ষাপটেই মুখ খুললেন অপর্ণা সেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়রা। ‘ভয় পেয়েছে’, এ ভাষাতেই ৬১ জন বিশিষ্টদের চিঠিকে কটাক্ষ করেছেন পরিচালক-অভিনেত্রী অপর্ণা সেন। দেশজুড়ে অসহিষ্ণুতার বাতাবরণ তৈরি হয়েছে , অবিলম্বে প্রতিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরকে খোলা চিঠি লিখেছিলেন দেশের ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি। সেই চিঠির পাল্টা হিসেবে শুক্রবার মোদীকে ফের খোলা চিঠি দেন আরও ৬১ জন বিদ্বজ্জনরা। দ্বিতীয় চিঠিতে কার্যত তুলোধনা করা হয়ছে প্রথম চিঠিতে স্বাক্ষরকারী ৪৯ জন বিশিষ্টকে।

৬১ জন বিদ্বজ্জনের পাল্টা চিঠি প্রসঙ্গ অপর্ণা সেন বলেন, ‘‘ইতিমধ্যেই কৌশিক সেনের কাছে হুমকি এসেছে। খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছে। অনুরাগ কাশ্যপের কাছে হুমকি ফোন এসেছে। হাসি পাচ্ছে। মাত্র ৪৯ জন লোক একটা চিঠি দিল, আর তারমধ্যেই দু-দুটো খুনের হুমকি এসে গেল। এত ভয়! তারমানে কোথাও গিয়ে একটা লেগেছে নিশ্চয়ই’’। এ প্রসঙ্গে অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আমার যা বক্তব্য চিঠিতে জানিয়েছে। বাকিরা কে কী তা নিয়ে বলল, তাতে আমার বিন্দুমাত্র মাথাব্যথা নেই। তাঁরা আগে নিজেদের ঘর সামলাক’’।

পাল্টা চিঠি প্রসঙ্গে সরব হয়েছেন কবি শঙ্খ ঘোষও বলেন, ‘‘প্রথম যে চিঠিটা দেওয়া হয়েছিল, সেটি অত্যন্ত স্বাভাবিক। দেশের পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন হয়ে শুভচিন্তাসম্পন্ন মানুষজন এটা লিখেছেন। কিন্তু তার পরবর্তীতে যে চিঠিটি গিয়েছে সেটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সম্পর্কিত। প্রথম চিঠিতে সই করেছিলেন যে সব বাঙালি, তাঁরা কেবলমাত্র পশ্চিমবঙ্গের আনাচার নিয়ে কথা বলছেন তা তো নয়, তাঁরা সম্পূর্ণ দেশের নিরিখে চিঠিটি লিখেছিলেন’’।

দেশের প্রথম সারির ৪৯জন বুদ্ধিজীবী কোনো সমস্যা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষণের জন্য চিঠি দিতেই পারেন । কিন্ত সেই প্রেক্ষিতে যেভাষায় ওই বুদ্ধিজীবীদের টার্গেট করা হল তা পেছনে যে রাজনীতি আছে তা বলাই বাহুল্যমাত্র । আজ সেই চিঠির পাল্টা প্রতিক্রিয়া দিয়ে অপর্ণা সেন , সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় , কবি শ্ঙখ ঘোষরা বাঙালির চিরন্তন ঐতিহ্য প্রতিবাদী সত্তাকে প্রমাণ করলেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment