কলকাতা 

আগামী লোকসভায় তৃণমূল – কংগ্রেস জোট,তাই কী অধীর চৌধুরি গদিচ্যুত হচ্ছেন?

শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আগামী লোকসভা নির্বাচনে এই রাজ্যে তৃণমূলের সঙ্গে জোট হতে পারে। জাতীয় স্তরে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিজেপি বিরোধী যে জোট গঠিত হতে চলেছে তাতে যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস যোগ দেয় তাহলে স্বাভাবিক নিয়মেই এরাজ্যেও জোট হবে। আর এই জোট কোনভাবেই অধীর চৌধুরিকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রেখে করা সম্ভব নয়। কারণ অধীরের সঙ্গে মমতার সর্ম্পক খুব একটা ভাল নয়।তাই শোনা যাচ্ছে,জুন মাসের মাঝামাঝি সময়েই প্রদেশ কংগ্রেসের নতুন সভাপতির নাম ঘোষিত হতে পারে।সভাপতির দৌড়ে দীপা দাসমুন্সী ও রাজ্যসভার সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচা্র্যের নাম শোনা যাচ্ছে। যদিও অধীর চৌধুরিকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী যথেষ্ট গুরুত্ব দেন। তা সত্ত্বেও তাকে প্রদেশ সভাপতির পদ থেকে শুধুমাত্র জোটের স্বা্র্থেই সরানো হচ্ছে বলে বিশেষ সূত্রে জানা গেছে। এছাড়াও সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনের দলের ভরাডুবির জন্য অনেকেই প্রদেশ সভাপতিকে দায়ী করেছেন। বিশেষ করে অধীরবাবুর অতি বামপ্রীতি যে রাজ্য কংগ্রেসের সংগঠনে অনেকটা ক্ষতি করেছে তা তিনি উপলব্ধি করতে পারেননি। কংগ্রেসের গড় ধরে রাখতে হলে শাসক দলের সঙ্গে যে বোঝাপড়ার দরকার তাও অধীরবাবু উপলদ্ধি করতে পারেননি। এর আগে সোমেন মিত্র যখন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ছিলেন তখন বামেরা নানা সময় মুর্শিদাবাদ,মালদাও উত্তরদিনাজপুর দখল করার নীলনকশা করলে তা সোমেনবাবুর রাজনৈতিক কৌশলে শেষ পর্যন্ত বামেদের জেলা নেতৃত্ব হার মানতে বাধ্য হত।

অধীররঞ্জন চৌধুরি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি হওয়ার পর থেকে সেই রাজনৈতিক কৌশল আর চোখে পড়ছে না। বরং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অকারণে আক্রমণ করে শাসক দলের সঙ্গে সর্ম্পককে আরও বিষিয়ে তুলেছে। আর  শাসক দল যখন প্রত্যাখ্যাত করেছে তখন তার মোকাবিলা করতে পারেননি অধীর চৌধুরি।ফলে কংগ্রেস দ্বিতীয় শক্তি  হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার পরও তা ধরে রাখতে পারেনি। শুধু তাই নয়,দলের প্রবীণ নেতাদের সঙ্গে সর্ম্পক ভাল রাখতে পারেননি অধীর চৌধুরি।তাই তাঁর আমলেই এরাজ্যে কংগ্রেস দল সাইনবোর্ড হয়ে গেছে। এসব দিক বিবেচনা করেই অধীরকে প্রদেশ সভাপতি পদ থেকে সরানোর প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। তবে অধীরের জায়গায় কাকে প্রদেশের দায়িত্ব রাহুল গান্ধী দেবেন তা এখনও জানা যায়নি। সূত্রের খবর অভিঞ্জ কোন প্রবীণ নেতাকেই যে প্রদেশে দায়িত্ব দেওয়া তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।


শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment