জেলা 

অনুপম সিং খুনের মামলায় মনুয়া ও তার প্রেমিক অজিতের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিল বারাসত আদালত ; একি বিচার ! ফাঁসির দাবিতে হাইকোর্টে যাবেন অনুপমের মা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  বারাসত ফাষ্ট ট্রাক কোর্ট গতকালই মনুয়া ও তার প্রেমিক অজিতকে অনুপম সিংহের খুনে দোষী সাব্যস্ত  করেছিল । শুক্রবার সেই  এদের দুজনকেই যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিল বারাসত আদালত । তবে আদালতের এই রায়ে সন্তুষ্ট নন , অনুপমের বাবা-মা । তাঁর বারাসত আদালতের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন । তাঁরা চান এই দুজনের ফাঁসির সাজা হোক । ফাঁসির সাজার দাবিতেই তাঁরা হাইকোর্টে যাবেন জানিয়েছেন ।

এ দিন সাজা ঘোষণার পরই বারাসত আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন অনুপম সিংহের আত্মীয়-পরিজন, বন্ধুরা। কান্নায় ভেঙে পড়েন খুন হওয়া অনুপম সিংহের মা এবং বাবা। আদালতের বাইরে অনুপমের মা কল্পনা সিংহ বলেন, ‘‘আমরা সঠিক বিচার পাইনি। এ কী বিচার করলেন বিচারক! আমরা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হব।’’ আর অনুপমের বাবা জানান, এই বিচারে ভারতের আইনব্যবস্থার প্রতি তাঁর শ্রদ্ধা উঠে গিয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘এখানে রাজনৈতিক চাপই সবচেয়ে বড় বিষয়। এই বিচার নিয়ে আমার আর কিছু বলার নেই। আমরা চাইছিলাম খুনিদের ফাঁসি হোক। আমাদের আবার লড়াই করতে হবে আইনের সঙ্গে।’’

অনুপমের দিদিও এই বিচারে অখুশি। তিনি এ দিন বলেন, ‘‘আমার ভাইকে যে ভাবে নৃশংস ভাবে মারা হয়েছে, তাতে ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল। ওরা আমার নিরাপরাধ ভাইকে মেরেছে। আমরা চাই তাদের ফাঁসি হোক।’’ অনুপম খুন হওয়ার পর থেকে তাঁদের নানাভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে এ দিন অভিযোগ করেছেন তিনি। তিনি জানান, তাঁদের বাড়ি-ঘরে ভাঙচুর চালানো হয়েছিল। মামলা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য একাধিক বার ভয় দেখানো হয়েছে। জেল থেকে বাইরে বেরিয়ে অজিত তাঁদেরও খুন করতে পারে, আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। তাঁদের আরও অভিযোগ, মামলা চলাকালীন সরকারি আইনজীবীকে বদলে দেওয়া হয়। নতুন আইনজীবী মামলাটা গুরুত্ব দিয়ে দেখেননি। এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকেও চিঠি দিয়েছিলেন তাঁরা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment