কলকাতা 

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো হবে সাধ্যমত বললেন শিক্ষামন্ত্রী , আজই তৃণমূল প্রভাবিত শিক্ষক সংগঠনের বৈঠকে ঘোষিত হতে পারে সিদ্ধান্ত

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রাজ্য সরকার সাধ্যমত প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে । প্রাথমিক শিক্ষকদের একটাংশ বেশ কয়েকদিন ধরে অনশন চালাচ্ছেন পিআরটি স্কেলের দাবিতে । কিন্ত রাজ্য সরকার পিআরটি স্কেল যে মানবে তা আগে বলে দিয়েছে । অনশনে অনড় রয়েছেন শিক্ষক এই পরিস্থিতিতে বুধবার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিধানসভায় জানান, রাজ্য সরকারের পক্ষে প্রাথমিক শিক্ষকদের যতটা বেতন বাড়ানো সম্ভব, ততটাই বাড়ানো হবে। আজ, বৃহস্পতিবার নজরুল মঞ্চে প্রাথমিক শিক্ষকদের একটি সংগঠনের সঙ্গে তাঁর প্রস্তাবিত বৈঠকে তিনি বেতন বাড়ানোর কথা ঘোষণা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

উস্তি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশেনর আন্দোলনকারী শিক্ষকশিক্ষিকাদের দাবি অনুযায়ী ৪২০০ টাকার গ্রেড পে চালু করা সম্ভব নয় বলে শিক্ষামন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন। তার কারণ হিসেবে পার্থবাবু জানান, ৪২০০ টাকার গ্রেড পে চালু করতে গেলে বাড়তি সাড়ে তিন হাজার থেকে চার হাজার কোটি টাকা লাগবে। এত টাকা রাজ্য সরকারের নেই।

আজকের বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী বেতন কতটা বাড়ানোর কথা ঘোষণা করবেন, সেই দিকে তাকিয়ে রয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষকশিক্ষিকারা। আন্দোলনের নেত্রী পৃথা বিশ্বাস জানান, তাঁরা ওই বৈঠকে ডাক পাননি। তবে সেখানে মন্ত্রী কী বলেন, তার অপেক্ষায় আছেন তাঁরা। পৃথাদেবী জানান, তাঁরা প্রধানত দুটি দাবি নিয়ে অনশনবিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন। 

১৪ জন শিক্ষককে অনৈতিক ভাবে বদলি করা হয়েছে। তাঁদের পুরনো স্কুলে ফিরিয়ে আনার দাবি জানানো হয়েছিল শিক্ষামন্ত্রীর কাছে। ‘‘শিক্ষামন্ত্রী বলেছিলেন, তিনি ২২ জুলাইয়ের মধ্যে বিষয়টি দেখবেন। কিন্তু সেই সমস্যারও সমাধান হয়নি। সর্বভারতীয় হারে গ্রেড পে ৪২০০ টাকা করার দাবিও মেটেনি। তা হলে আমরা কেন অনশন তুলব,’’ প্রশ্ন তোলেন আন্দোলনের অন্যতম নেত্রী।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment