দেশ 

আস্থা ভোটে হেরে গেলেন কুমারস্বামী ; কর্ণাটকে কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারের পতন হয়ে গেল

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ক্ষমতা ধরে রাখতে পারল না কংগ্রেস-জেডিএস জোট । আজ মঙ্গলবার আস্থা ভোটে কুমারস্বামী সরকারের পতন ঘটে গেল । দীর্ঘ এক বছর ধরে চেষ্টা করার পর বিজেপি দল কংগ্রেস জোট সরকারের পতন ঘটাতে সক্ষম হল ।সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হলেন কুমারস্বামী। ফলে কংগ্রেসজেডিএস সরকারের পতন হল কর্নাটকে। 

আজ সন্ধ্যা টায় আস্থা ভোট নেওয়া হবে, আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন স্পিকার। সেই মতো আস্থা ভোট হয়। স্পিকার  জানিয়ে দেন, ৯৯ ভোট গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর পক্ষে। অন্য দিকে বিজেপির পক্ষে গিয়েছে ১০৫ ভোট। অন্যদিকে আস্থা ভোটের আগেই দুই নির্দল বিধায়কের দখল ঘিরে ধুন্ধুমার বেঙ্গালুরুতে। তুমুল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লেন বিজেপি কংগ্রেস কর্মীসমর্থকরা। পুলিশ গিয়ে দুপক্ষের প্রায় ১০০ জনকে গ্রেফতার করেছে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বেঙ্গালুরুতে কোনও রকম জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পুলিশ। 

সোমবার পর্যন্ত দুই নির্দল বিধায়ক কংগ্রেসের সঙ্গে ছিল বলেই খবর। কিন্তু সন্ধ্যার দিকে তাঁদের মত পাল্টে যায়। আজ মঙ্গলবারের আস্থা ভোটে তাঁরা বিজেপির পক্ষে সমর্থন দেবেন বলে খবর রটে যায়। শুরু হয় ওই দুই বিধায়কের খোঁজ। কংগ্রেস নেতারা বিভিন্ন সূত্রে জানতে পারেন, বেঙ্গালুরুতেই বিধানসভার কাছাকাছি রেসকোর্স রোডের একটি বাড়িতে ওই দুই বিধায়ককে রাখা হয়েছে।

এরপরেই ওই দুই বিধায়ক যেখানে ছিলেন সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয় কয়েক শো কংগ্রেস কর্মী । বিজেপি এবং কংগ্রেস কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায় । পুলিশ দুপক্ষের ১০০জন করে কর্মীকে গ্রেফতার করে । কিন্ত যাইহোক শেষ পর্যন্ত বেশ কয়েকদিন ধরা চলা নাটকের যবনিকা পতন ঘটে গেল । কুমারস্বামী এবং কংগ্রেস নেতৃত্ব পারলেন না সরকারকে টিকিয়ে রাখতে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment