কলকাতা 

শিক্ষক নিয়োগে কাটমানি, ট্রান্সফারে কাটমানি, বিভিন্ন দফতরে কাজ করাতে কাটমানি চার বামপন্থী শিক্ষক সংগঠনের এই অভিযোগে তোলপাড় শিক্ষামহল

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : চারটি বামপন্থী শিক্ষক সংগঠনের পক্ষ থেকে আজ বুধবার বিকাশ ভবনে শিক্ষামন্ত্রীর কাছে একাধিক দাবি নিয়ে ডেপুটেশন দেওয়া হয় । আর এই উপলক্ষে বুধবার হাজার হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা জমায়েত হন সল্টলেকে। ওয়াই চ্যানেলে কাছে তৈরি করা হয় মঞ্চ।

এদিন চারটি বামপন্থী শিক্ষক সংগঠনের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, শিক্ষকদের কাছ থেকেও শাসকদল কাটমানি নিয়েছে। শিক্ষক নিয়োগে কাটমানি, ট্রান্সফারে কাটমানি, বিভিন্ন দফতরে কাজ করাতে কাটমানি। আবার কাটমানি না দিলে শিক্ষক শিক্ষিকাদেরকে দূরে ট্রান্সফার করে দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া শিক্ষক সংগঠনের মূল দাবি, রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতন স্কেল ৯৩০০ – ৩৪৮০০, গ্রেড পে ৪২০০ করার দাবি। এক দেশ এক বেতন স্কেল দাবি। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষক শিক্ষিকাদের ক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীদের অনুরূপ বেতনক্রম দিতে হবে। অবিলম্বে ৬ষ্ঠ পে কমিশন কার্যকর করতে হবে। রাজ্যের সমস্ত প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকাদের শারদোৎসব ও ঈদ উৎসবের আগে অগ্রিম ও বোনাস দিতে হবে। উত্তর দিনাজপুর জেলার প্রাথমিক শিক্ষক শান্তনু অধিকারীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। শিক্ষাক্ষেত্রে গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে হবে।

শিক্ষকদের মিছিল থাকার জন্য ময়ুখ ভবন থেকে করুনাময়ীর দিকে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া বিকাশ ভবন থেকে ময়ুখ ভবন উভয় দিকে রাস্তা বন্ধ করে দেয় পুলিশ। এবং করুনাময়ী থেকে বিকাশ ভবনগামী গাড়ি ময়ুখ ভবন থেকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। এদিনের শিক্ষক আন্দোলনে যোগ দেয় চারটি বামপন্থী শিক্ষক সংগঠন। এরা হল, নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, সারা বাংলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, বঙ্গীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও প্রাথমিক শিক্ষক সংঘ – পশ্চিমবঙ্গ ।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment