কলকাতা 

সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা হাইকোর্টে খারিজ হয়ে গেল ; আগামী কাল হচ্ছে না বিধাননগর পুরনিগমে আস্থা ভোট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিধাননগর পুর নিগমের চেয়ারম্যান সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাব হাইকোর্টে খারিজ হয়ে গেল । ফলে ১৮ জুলাই অর্থাৎ আগামী কাল বিধাননগরে আস্থা ভোট হবে না।

বুধবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় প্রায় সওয়া দু’ঘন্টার শুনানির পর রায় দান স্থগিত রাখেন। এ দিন সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ তিনি রায় দেন। তিনি তাঁর রায়ে জানান যে প্রক্রিয়ায় অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে এবং নোটিস দেওয়া হয়েছে সব্যসাচীকে তা সঠিক নয়। তাঁকে ফের নোটিস দেওয়া যেতে পারে। তবে  পুর কমিশনার নন, পুরসভার চেয়ার পার্সন সেই নোটিস ইস্যু করতে পারেন।

বুধবার শুনানির শুরুতেই, সব্যসাচী দত্তের আইনজীবী, কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য মেয়রকে পাঠানো পুর কমিশনারের নোটিসের আইনি বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে পুর নিগমের কাউন্সিলররা অনাস্থা আনলে তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন বর্তমান মেয়র সব্যসাচী। তিনি তাঁর আবেদনে জানান, কাউন্সিলরদের ভয় দেখিয়ে ওই অনাস্থা প্রস্তাবে সই করানো হয়েছে এবং পুর কমিশনারের দেওয়া নোটিস বৈধ নয় বলে দাবি করেন সব্যসাচী। এ দিন সেই সূত্র ধরেই বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য নোটিসের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুললে তার বিরোধিতা করেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি দাবি করেন, যে নোটিস দেওয়া হয়েছে তা বৈধ।

দলবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে সব্যসাচীর বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাব অনুযায়ী, ১৮ জুলাই ভোটাভুটি। দুপক্ষের সওয়াল জবাব শোনার পর সন্ধ্যা ৬ টা নাগাদ বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় রায় দিয়ে বলেন , অনাস্থা প্রস্তাব আনার নোটিশ দিয়েছেন পুর কমিশনার । এটা আইন মেনে হয়নি । সুতরাং এই নোটিশ খারিজ করা হল । দুদিন পর মিটিং করে পুর চেয়ারম্যান এই ধরনের নোটিশ জারি করতে পারবে । এদিক থেকে সাময়িকভাবে সব্যসাচী দত্ত হাইকোর্টে জয়ী হলেও শেষ পর্যন্ত মেয়র পদ রাখতে পারবেন কিনা তা সময়ই উত্তর দেবে । আপতত সব্যসাচীর মেয়র পদ থেকে সরাতে তৃণমূল পারল না ।

 

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment