দেশ 

হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লাগবে তাই গরু কুরবানী দেওয়া উচিত নয় বলে মুসলিমদের কাছে আবেদন করলেন তেলেঙ্গানার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মেহমুদ আলি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আসন্ন ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে মুসলিমদের গরু কুরবানী না দেওয়ার জন্য নজীরবিহীনভাবে আবেদন করছেন তেলেঙ্গানার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেহমুদ আলি । তিনি বলেছেন , গরু কুরবানী দিলে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করা হবে। কারণ তারা গরুকে দেবতা হিসাবে পুজো করে থাকে । সুতরাং একটি বিরাট অংশের মানুষের ভাবাবেগে আঘাত দিয়ে গরু কুরবানী করা উচিত নয় । তাই ঈদ-উল-আযহায় মুসলিমদের ছাগল কুরবানী দেওয়া উচিত বলে মেহমুদ আলি মনে করেন ।

টিআরএস বা তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতির সদস্যপদ গ্রহণের অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে গিয়েই এই আরজি জানান মন্ত্রী৷ সংবাদমাধ্যমের মধ্য দিয়েই তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে আবেদন জানান গরু কুরবানী না দেওয়ার জন্য৷ গরুর বদলে অন্য কোনও পশু, যেমন ছাগল বা ছোট কোনও জন্তু বলি দেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি৷

রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও , যদি গরু কুরবানী নিয়ে কোনও অশান্তি তৈরি হয়, তাহলে আইন নিজের কাজ করবে৷ সেক্ষেত্রে মুসলিমদের রেয়াত করা হবে না বলেই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মেহমুদ আলি৷ ঈদে গরু কুরবানী দেওয়াকে কেন্দ্র করে তিনি তেলেঙ্গানায় কোনও অশান্তি ও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি চান না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷  তিনি কঠোর মনোভাব নিয়ে বলেন , গরু কুরবানীকে কেন্দ্র করে রাজ্যে কোথাও যদি অশান্তি হয় তাহলে পুলিশ তা কড়া হাতে দমন করবে।

এদিন সম্প্রীতির বার্তা দেন মেহমুদ আলি৷ সেই প্রসঙ্গেই তিনি তুলে আনেন প্রসিদ্ধ চারমিনারের কথা৷ তিনি বলেন চারমিনার হিন্দু, মুসলিম, শিখ ও খ্রিস্টানদের ঐক্য ও সম্প্রীতির প্রতীক৷ চারমিনার চারটি পিলার এই চার ধর্মের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে বলে বার্তা দেন মেহমুদ আলি৷

 

 

 

 

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment