দেশ 

‘‘মন্ত্রীরাই যদি সংসদে না থাকেন, তা হলে সাংসদদের থাকতে বলি কী করে? আমি সবাইকে ঠিক করতে জানি’’ মন্ত্রীদের উপস্থিতি নিয়ে কড়া অবস্থান মোদীর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : দ্বিতীবার ক্ষমতায় আসার পর কড়া হাতে যেমন বিরোধীদের মোকাবিলা করছেন একইভাবে নিজের দলের সাংসদ-মন্ত্রীদেরও মোকাবিলা করতে শুরু করেছেন নরেন্দ্র মোদী । গতকাল দলীয় সাংসদও মন্ত্রীদের সঙ্গে সাপ্তাহিক বৈঠকে সাংসদদের সংসদে হাজিরা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে মোদী বলেন ‘‘মুঝে সবকো ঠিক করনা আতা হ্যায়।’’

তিনশো পার করে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরে সংসদের প্রথম অধিবেশনের শুরুতেই দলের সাংসদ ও মন্ত্রীদের প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন, সংসদে নিয়মিত হাজিরা দিতে হবে। সারাক্ষণ সভায় বসে থাকতে হবে। কিন্তু অধিবেশন প্রায় এক মাস গড়ানোর পরে ঢিলেমি এসেছে সাংসদদের মধ্যে। এমনকি, সংসদে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার সময়ও হাজির থাকছেন না সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরাই। তা নিয়ে বিরোধী দলের নেতারা যেমন সংসদে প্রতিবাদ করছেন, তেমনই চিঠি লিখে নালিশ জানাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীকে।

তাই সংসদে মন্ত্রীদের গরহাজিরা নিয়ে মোদী আজ ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বিজেপি সাংসদদের কাছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘ফার্স্ট ইম্প্রেশন ইজ লাস্ট ইম্প্রেশন। বিরোধী দলের নেতা আমাকে চিঠি লিখে নালিশ জানাচ্ছেন। মন্ত্রীরাই যদি সংসদে না থাকেন, তা হলে সাংসদদের থাকতে বলি কী করে? আমি সবাইকে ঠিক করতে জানি।’’

শুধু এটুকু হুঁশিয়ারি দিয়েই মোদী ক্ষান্ত হননি। সংসদীয়মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশীকে বানিয়ে দিয়েছেন ‘ক্লাস মনিটর’। যে সব মন্ত্রী সংসদে থাকছেন না, তাঁদের নাম লিখে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে সেই তালিকা তাঁর কাছে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment