কলকাতা 

সারদা কান্ডে তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় সহ ৬ জনকে তলব করল ইডি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  সারদা কান্ডে এবার আসরে নামল ইডি । একসঙ্গে ৬ জনকে তলব করেছে ইডি । যাঁদের মধ্যে আছেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় , প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষ , ইষ্টবেঙ্গলের কর্তা দেবব্রত মজুমদার , ব্যবসায়ী সজ্জন আগরওয়াল এবং সন্ধির আগরওয়াল রয়েছেন ।

একই সঙ্গে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সারদা গোষ্ঠীর এজেন্ট অরিন্দম দাস ওরফে বুম্বাকেও তলব করেছে ইডি বলে জানা গেছে।

সারদা তদন্তে আর্থিক কেলেঙ্কারির তদন্তে নেমে ইডি অফিসারেরা বেশ কিছু সূত্র পান। সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে কাদের যোগযোগ ছিল? আর্থিক তছরুপে তাঁদের কোনও ভূমিকা ছিল কি না? এ সবই খতিয়ে দেখছেন কেন্দ্রীয় সংস্থার অফিসারেরা। এ বিষয়ে ইডি-র তরফে কিছু জানানো না হলেও, তাঁদের আগামী সপ্তাহের মধ্যেই সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে ইডি দফতরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সাংসদ শতাব্দী রায় সারদা গোষ্ঠীর একটি কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন বলে দাবি। সারদা গোষ্ঠীর সঙ্গে তাঁর কী চুক্তি হয়েছিল? চুক্তির বাইরে সারদা গোষ্ঠার সঙ্গে শতাব্দীর কোনও আর্থিক লেনদেন হয়েছে কি না, সে বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে পারেন তৃণমূল সাংসদ। অন্য দিকে, সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের ঘনিষ্ঠ বৃত্তের মধ্যেই ছিলেন কুণাল ঘোষ। সে কারণে  তাঁকেও ডাকা হয়েছে।

সারদা গোষ্ঠীতে শুরু থেকে এজেন্ট হিসাবে কাজ করতেন অরিন্দম দাস। সুদীপ্ত সেনের ঘনিষ্ঠ ছিলেন অরিন্দম ওরফে বুম্বা। তাঁর মাধ্যমে বহু মানুষ সারদায় টাকা রাখেন। পরে যখন সুদীপ্ত এবং সারদা গোষ্ঠীর ‘সেকেন্ড ইন কমান্ড’ দেবযানী মুখোপাধ্যায় গ্রেফতার হন, তার পর দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ব্রাঞ্চ থেকে সারদার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে বুম্বার বিরুদ্ধে।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment