কলকাতা 

ষষ্ঠ বেতন কমিশন কার্যকর হলে রাজ্যের ন্যুনতম সরকারি কর্মচারীদের ন্যুনতম বেতন হবে ১৬ হাজার টাকার বেশি ; ২০২০ থেকেই কার্যকর হবে ; বকোয়া মিলতে পারে ২০১৬ থেকে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : দীর্ঘ দিন ধৈর্য ধারন করেছেন রাজ্যের সরকারি চাকুরিজীবী । বিভিন্ন মহল থেকে পাওয়া সূত্রে জানা যাচ্ছে আর কয়েক মাস অপেক্ষা তার পরেই মিলতে পারে বড় অংকের বেতন । কেন্দ্রীয় হারে বাড়ছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন । শিক্ষক থেকে শুরু করে অফিসের কেরানী এমনকি পিওন পর্যন্ত সবারই মাইনে বাড়তে চলেছে । বিশেষ সূত্রে যে খবর আমাদের কাছে এসেছে তা থেকে জানা যাচ্ছে রাজ্যের ডি গ্রূপের কর্মচারীদের বেতন হবে প্রাথমিক স্তরেই ১৬ হাজার টাকার বেশি । কেন্দ্রীয় সরকারের যেখানে ন্যুনতম বেতন ১৮হাজার করা হয়েছে সেখানে রাজ্যের ১৬ হাজার টাকা খুব কম না বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে ।

জানা গেছে, এ মাসেই জমা পড়তে  চলেছে ভারতের সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদি বেতন কমিশনের রিপোর্ট । এই রিপোর্টে কী আছে তা এখন পর্যন্ত কমিশন বলেনি । বিগত চার বছর ধরে বেতন কমিশন আসলে কী হিসেব করছেন তাও জানা যায়নি । তবে বিশেষ সূত্রে জানা গেছে , এই মাসেই জমা পড়বে বেতন কমিশনের সুপারিশ । আর সবচেয়ে খুশির খবর এই যে , কেন্দ্রীয় হারে বেতন বাড়ানো সুপারিশ করতে চলেছেন অভিরূপ সরকার ।

বিশেষ সূত্রে জানা গেছে , কেন্দ্র সরকার যে নিয়মে কর্মীদের বেতন বাড়ান সেই নিয়মেই বেতন বাড়ানো সুপারিশ করবে কমিশন । কেন্দ্র যে হারে বেতন কাঠামোর সংস্কার করে থাকে, রাজ্যও সেই হারই অনুসরণ করছে বলেও জানা যাচ্ছে। বকেয়া বেতনের কতটা মিলবে, তা নিয়ে সংশয় যথেষ্টই। কিন্তু কেন্দ্রীয় হারেই বেতন সংস্কার হচ্ছে বলে যা শোনা যাচ্ছে, তাতে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে কর্মী সংগঠনগুলি।

২.৫৭ ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর পদ্ধতি অথবা ১৪.৩৮ শতাংশ বৃদ্ধি— কেন্দ্র সাধারণত এই পদ্ধতি অনুসরণ করেই বেতন সংস্কার করে। একই পদ্ধতি অনুসরণ করে বিভিন্ন রাজ্য সরকারও। পশ্চিমবঙ্গ সরকারকেও সেই হারেই বেতন সংস্কার করার পরামর্শ বেতন কমিশন দিতে চলেছে বলে খবর। যে পদ্ধতি অনুসরণ করে বেতন সংস্কারের সুপারিশ জমা পড়ছে বলে খবর, তাতে নতুন বেতনক্রম চালু হওয়ার পর থেকে রাজ্য সরকারি চাকরিতে ন্যূনতম বেতন হবে  ১৬ হাজার টাকার বেশি। ২.৫৭ ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর বা ১৪.৩৮ শতাংশ বৃদ্ধি— এর মধ্যে দ্বিতীয় পদ্ধতি অনুসৃত হলে, বেতন বৃদ্ধির পরিমাণ সামান্য বেশি হবে। তবে ফারাকটা উনিশ-বিশ।

রাজ্য সরকারের কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি বহুদিন থেকেই ক্ষোভ রয়েছে । বেতন কমিশন সুপারিশ নবান্নে জমা দেওয়ার তা কীভাবে কার্যকরী করা হবে তা নিয়ে একটি কমিটি হবে । সেই কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার পরেই বেতন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন করবে সরকার । তবে আশা করা হচ্ছে করা হচ্ছে খুব দেরি হলেও তা ২০২০-এর জানুয়ারি থেকেই লাগু হয়ে যাবে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment