আন্তর্জাতিক 

পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এবং সাবেক রাষ্ট্রপতি মহম্মদ এরশাদ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : চলে গেলেন মহম্মদ এরশাদ । বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি ছিলেন তিনি । রবিবার ভারতীয় সময় ৭.১৫ মিনিটে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। গত ২৭ জুন থেকে আইসিইউতে ছিলেন বাংলাদেশের জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ। ফুসফুসে সংক্রমণ, কিডনির জটিলতা-সহ একাধিক অসুখে ভুগছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মৃতুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর ।

১৯৩০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি অবিভক্ত ভারতের কোচবিহারে জন্মগ্রহণ করেন এরশাদ। পরে তাঁর পরিবার রংপুরে চলে যায়। সেখানেই প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা শেষ করেন এরশাদ। ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক হন তিনি। ১৯৫২ সালে পাক সেনাবাহিনীতে যোগ দেন এরশাদ। পরে, লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে উন্নীত হন তিনি। মুক্তিযুদ্ধের সময় সপ্তম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে অধিনায়কের দায়িত্ব ছিল এরশাদের উপরে।

১৯৮২ সালের ২৪ মার্চ রাষ্ট্রপতি আবদুস সাত্তারের নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে সেদেশের সেনাবাহিনী রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে। সেই সময় থেকেই বাংলাদেশের দায়িত্ব তিনি গ্রহণ করেন ।  ১৯৮৩ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত তিনি দেশ শাসন করেন। পরে, রাষ্ট্রপতি আহসানউদ্দিন চৌধুরীকে সরিয়ে রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিনি। কিন্তু, দেশবাসীর প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়ে শেষপর্যন্ত পদত্যাগ করতে বাধ্য হন তিনি।

১৯৯১ সালে গ্রেফতার করা হয় এরশাদকে। জেলে থাকাকালীনই ১৯৯১ সালের সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হন তিনি। ছ’বছর জেলে থাকার পর, ১৯৯৭ সালের জামিনে মুক্ত হন এরশাদ। তাঁর মৃত্যুতে শেষ হল বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের এক বর্ণময় অধ্যায়।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment