জেলা 

মুকুল রায়ের খাস তালুকেই মমতার ম্যাজিক ; বিজেপিতে চলে যাওয়া কাউন্সিলাররা যোগ দিলেন তৃণমূলে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  মমতার ম্যাজিকেই বাজিমাত করছে তৃণমূল কংগ্রেস ।  উত্তর ২৪ পরগনার হালিশহর পুরসভার দখল নেওয়ার পরেই এবার কাঁচরাপাড়া পুরসভা । এটি মুকুল রায়ের খাস তালুক বলে পরিচিত । আজ কাঁচরাপাড়া পুরসভার বিজেপিতে যোগ দেওয়া পাঁচ তৃণমূল কাউন্সিলর ফিরে এলেন ঘাসফুল শিবিরে। লোকসভা নির্বাচনের পর গেরুয়া শিবিরের আধিপত্য কমাতে এবং ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতে ইতিমধ্যে উদ্যোগী হয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই উদ্যোগেই হালিশহরের পর এবার ‘মুকুলগড়’ কাঁচরাপাড়ার পাঁচ দলত্যাগী তৃণমূল কাউন্সিলর পের ফিরে এলেন ঘাসফুলে।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মে ঘাসফুল শিবির ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লিখিয়েছিলেন এই পাঁচ কাউন্সিলর। কিন্তু আজ পুনরায় শিবির বদল করে বিধানসভায় এসে ফের একবার তৃণমূলে নাম লেখান এই দলত্যাগী কাউন্সিলররা।

এদিন শিবিরত্যাগীদের ফের তৃণমূলে ফেরার প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, “পুরসভার বোর্ডের ২৪ জনের মধ্যে ১০ জন চলে এসেছে। আর তিনজন এর মধ্যেই চলে আসবেন। অর্থাৎ সংখ্যাগরিষ্ঠতা তৃণমূল কংগ্রেসের ছিল এবং আছে। আজ যারা ফিরে এলেন তাঁদের প্রাণ ভরে বরণ করে নিলাম। এবার থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে একযোগে কাজ করব আমরা। এদিন নাম না করে কাঁচরাপাড়ার ‘কাঁচা ছেলে’ মুকুল রায় এবং ঘাসফুল শিবির ত্যাগ করে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভ্রাংশুকে কটাক্ষ করে ববি বলেন, “ভয় দেখিয়ে বাবা-ছেলে কৃতিত্ব নেওয়ার জন্য মোটা ভাইয়ের কাছে নম্বর বাড়ানোর চেষ্টা করেছিল, কিন্তু সব বিফলে গেল। মোটা ভাই আর মনে হয় তাঁদের পাত্তা দেবে না”।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment