কলকাতা 

তমলুকের শ্রীরামপুর এগ্রিকালচার হাইস্কুলে দুই পড়ুয়ার মৃত্যুর তদন্ত দাবি জানাল এসআইও

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকের শ্রীরামপুর এগ্রিকালচার হাইস্কুলের হোস্টেলে নবম শ্রেণীর দুই পড়ুয়া শরিফুল গাজী ও সৌরভ শুঁড়ির মৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করল ছাত্র সংগঠন স্টুডেন্টস ইসলামিক অরগানাইজেশন (এসআইও)। শনিবার এক প্রেস বিবৃতির মাধ্যমে এই দাবি জানিয়েছেন সংগঠনের রাজ্য সভাপতি ওসমান গণি।

এই প্রসঙ্গে এসআইও’র রাজ্য সভাপতি বলেন, ” শরিফুল গাজীর রহস্যময় হত্যা কান্ডের ঘটনায় দোষীদের আড়াল করতেই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী শরিফুলের বন্ধু সৌরভ শুঁড়িকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। সৌরভ আত্মহত্যা করেছে বলে হোস্টেলের তরফে যেভাবে বলা হচ্ছে, তা আমরা মানব না।” এই দুই ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি করে তিনি দোষীদের কঠোর শাস্তির আর্জি জানান।

প্রসঙ্গত, গত ২০ এপ্রিল পূর্ব মেদিনীপুরের শ্রীরামপুর এগ্রিকালচার হাইস্কুলে হোস্টেলের শৌচাগার থেকেউত্তর ২৪ পরগনার কাটিয়াহাট দক্ষিণ পাড়ার বাসিন্দা নবম শ্রেনীর ছাত্র শরিফুল গাজীকে ঝুলন্তঅবস্থায় পাওয়া যায়। যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় তমলুক সহ গোটা রাজ্যে।মৃত শরিফুলের শরীরের একাধিক জায়গায় ক্ষত চিহ্ন পাওয়া যায়। এই ক্ষত চিহ্ন দেখেই শরিফুলকে খুন করা হয়েছিল বলে দাবি জানিয়েছিল তার পরিবারের লোকজন সহ অনেকেই। যদিও ময়না তদন্তের রিপোর্টে শরিফুল ‘আত্মহত্যা’  করেছে বলেই দেখানো হয়।

তবে শরিফুলের মৃত্যুর ঘটনার কয়েক দিনের মধ্যেই তার মৃত্যু নিয়ে সরব হওয়া তারই সহপাঠী সৌরভ শুঁড়ির ঝুলন্ত দেহ পাওয়া গেল বন্ধ হোস্টেলের একটি ঘর থেকে। এসআইও’র রাজ্য সভাপতি বলেন, সৌরভের মৃত্যুর ঘটনার ফলে শরিফুলকে খুন করা হয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। তাঁর দাবি, শরিফুলের খুনের ঘটনাকে ধামা চাপা দিতেই প্রত্যক্ষদর্শী সৌরভ শুঁড়িকেও পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। এই দুই ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছেন এসআইওর রাজ্য সভাপতি।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment