জেলা 

রেজ্জাক মোল্লার পুত্র তৃণমূল নেতা মোস্তাক আহমদের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ দায়ের থানায়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় কাটমানি বিক্ষোভ চলছে এবার তার রেশ এসে লাগল খোদ কলকাতার কাছে ভাঙড়ে । আবার এই কাটমানির অভিযোগ উঠেছে এক কালের কমিউনিষ্ট নেতা এবং বর্তমানে তৃণমূলের মন্ত্রী রেজ্জাক মোল্লার পুত্রের বিরুদ্ধে । শুধু অভিযোগ নয় , বা পোষ্টার নয় বরং কাটমানি ফেরতের দাবি জানিয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী । যাতে বিষয়টি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে ।

জানা গেছে একটি হিমঘর তৈরি এবং জমি সংক্রান্ত বিষয়ে এই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। নিয়ে ইতিমধ্যেই কলকাতার লেদার কমপ্লেক্স থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মণিরুল জামান মোল্লা এবং লালবাবু মোল্লা। এই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে রোজ্জাক মোল্লার পুত্র মোস্তাকের প্রতিক্রিয়া: ‘‘যাঁরা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন তাঁরা আরাবুল অনুগামী। বিভিন্ন মামলায় জেলও খেটেছেন। আমি বিভিন্ন প্রকল্পে মাটি চুরির প্রতিবাদ করেছিলাম। বিষয়ে হিডকো চেয়ারম্যানসহ প্রশাসনিক কর্তাদের কাছে অভিযোগও জানিয়েছি। সে কারণেই আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে।’’ পাল্টা অভিযোগে মোস্তাক দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের দিকেই ইঙ্গিত করেছেন।

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে আরাবুল ইসলাম বলেন, ‘‘কারা অভিযোগ করেছে, কে আমার নামে কী বলছে, বিষয়ে আমি কোনও মন্তব্য করব না।

ভাঙড় () জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাক। বিভিন্ন দরকারে তাঁর সাহায্য নেন বাসিন্দারা। মণিরুল জামান মোল্লা এবং লালবাবু মোল্লার অভিযোগ, হিমঘর এবং জমি সংক্রান্ত ঘটনায় তিন বছর আগে তাঁদের কাছ থেকে প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা কাটমানি নিয়েছিলেন মোস্তাক। কিন্তু এর পর থেকে মোস্তাক তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। ফোন করলে ধরতেন না। এমনকি, ফোন কেটেও দিতেন। প্রতিবাদ করলে শেষে তাঁদের হুমকি দিতেও মোস্তাক পিছপা হননি বলে তাঁদের অভিযোগ। এর পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন মণিরুল লালবাবু।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment