কলকাতা 

‘‘সকলকে নিয়ে যে ভারত, আমি তার প্রতিনিধি।… যে ভারত জাতপাত-ধর্মের সমস্ত বাধার ঊর্ধ্বে। সব ধর্মকেই আমি শ্রদ্ধা করি। এখনও আমি এক জন মুসলিম “ : নুসরাত জাহান

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ফতোয়া নয় , শুধু মাত্র মন্তব্য করেছিলেন দেওবেন্দের এক আলেম । আর এই মন্তব্যকে ঘিরে দেশজুড়ে শুরু হল বির্তক । বিজেপি নেত্রী সাধ্বী প্রজ্ঞা থেকে শুরু করে বাংলার সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরিও নানা মন্তব্যের ভরিয়ে তুললেন সংবাদ পত্র । কিন্ত কোনো ভাবেই দেওবন্দ ফতোয়া দেয়নি । এটা বিশেষ একজন আলেমের বক্তব্য মাত্র । তা সত্ত্বে যেভাবে বিষয়টি নিয়ে জলঘোলা হচ্ছে তা যথেষ্ট উদ্বেগজনক । এদিকে মাওলানার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান জানিয়েছেন , ‘‘কোনও ধর্মের কট্টরপন্থীদের মন্তব্যকে গুরুত্ব দিলে বা প্রতিক্রিয়া জানালে সেটা শুধু ঘৃণা হিংসাই ছড়ায়। ইতিহাস তার সাক্ষী।’’

দারউলউলুম’-এর ইমামের বক্তব্য, ‘‘খোঁজ নিয়ে জেনেছি, তিনি জৈন সম্প্রদায়ের এক জনকে বিয়ে করেছেন। ইসলাম বলে, এক জন মুসলমান শুধু মুসলমানকেই বিয়ে করতে পারেন। দ্বিতীয়ত, নুসরত এক জন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীরা ধর্মের শাসন মানেন না। যা ইচ্ছা তা করেন। সেটাই সংসদে দেখা গিয়েছে। তিনি সংসদে সিঁদুর এবং মঙ্গলসূত্র পরে এসেছিলেন।

এমন বিতর্ককে নুসরত শুধু খারিজই করেননি। লিখেছেন, ‘‘সকলকে নিয়ে যে ভারত, আমি তার প্রতিনিধি।যে ভারত জাতপাতধর্মের সমস্ত বাধার ঊর্ধ্বে। সব ধর্মকেই আমি শ্রদ্ধা করি। এখনও আমি এক জন মুসলিম। এবং আমি কী পরব, তা নিয়ে কারও মন্তব্য করা উচিত নয়। বিশ্বাসের স্থান পোশাকসাজসজ্জার উপরে। বিশ্বাসের মানে সব ধর্মের অমূল্য শিক্ষাগুলিকে মনে গ্রহণ করা তা পালন করা।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment