দেশ 

রাজস্থানে গরু পাচারের অভিযোগে পহলু খানকে খুন করা হলেও তার বিরুদ্ধেই চার্জশিট দিল রাজস্থান পুলিশ , অস্বস্তিতে কংগ্রেস সরকার ; পুনরায় তদন্তের আশ্বাস গেহলটের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কয়েক দিন আগেও সংসদে দাঁড়িয়ে মোদী সরকার ও বিজেপিকে রাজস্থানে পহলু খানকে পিটিয়ে মারার জন্য দায়ী করেছিলেন বিরোধী দলের সাংসদরা । এমনকি রাজ্যসভাতেও কংগ্রেস নেতা গোলাম নবী আজাদ এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছিলেন । শুধু তাই পহলু খান ইস্যুকে গত বিধানসভা নির্বাচনে কাজে লাগিয়ে জনমতকে নিজেদের দিকে টেনে আনতে সচেষ্ট হয়েছিল কংগ্রেস । কিন্ত সেই কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকার সময়ই আদালতে এই মামলায় যে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে তাতে পহলু খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে ।

শুধুমাত্র পহলু খানই নন, চার্জশিটে নাম রয়েছে তাঁর দুই ছেলে আরিফ খান ইরশাদ খান এবং পিকআপ ট্রাকের চালকেরও। ২০১৭ এপ্রিলে জয়পুরের একটি পশুহাট থেকে গরু কিনে বাড়ি ফিরছিলেন ৫৫ বছরের পহলু। সঙ্গে ছিলেন তাঁর দুই ছেলে আরিফ ইরশাদ। অলওয়রে তাঁদের গাড়ি থামায় গোরক্ষকেরা। গরু পাচারের অভিযোগ চলে বেধড়ক মারধর। অভিযোগ, গরু কেনার রসিদ দেখিয়েও কোনও লাভ হয়নি। যদিও পুলিশের দাবি ছিল, তাঁদের সঙ্গে প্রয়োজনীয় নথিপত্র ছিল না।

মারধরের পর আহত অবস্থায় পহলু খানকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মারা যান তিনি। গুরুতর আহত হন তাঁর দুই ছেলেও। রাজস্থান পুলিশ সে সময় দুটি এফআইআর দায়ের করে। প্রথম এফআইআরে আট জনের বিরুদ্ধে পহলুকে মারধরের অভিযোগ আনা হয়। এবং দ্বিতীয় এফআইআরে অভিযোগ করা হয়, জেলাশাসকের বিনা অনুমতিতে পহলু তাঁর দুই ছেলে গরু পাচার করছিলেন। তবে ওই আট অভিযুক্তই পরে জামিন পেয়ে যায়। ওই ঘটনায় দেশেবিদেশে সাড়া পড়ে যায়। গোরক্ষকদের তাণ্ডবের বিরুদ্ধে মুখ খোলে কংগ্রেসসহ অন্য বিরোধী দল।

গত বছরের ডিসেম্বরে এই চার্জশিট তৈরি করা হয়েছিল। তবে রাজস্থানে কংগ্রেস সরকার গঠনের পর চলতি বছরের ২৯ মে বেহররের একটি আদালতের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে তা পেশ করা হয়।

এই ঘটনায় চার্জশিট পাওয়ার খবরে হতবাক পহলু খানের পরিবার। পহলুর ছেলে ইরশাদ জানিয়েছেন, কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় আসার পর তাঁরা ভেবেছিলেন অবস্থার পরিবর্তন হবে। তবে এই ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত। এআইএমআইএমএর আসাদুদ্দিন ওয়াইসির দাবি, ক্ষমতায় আসা কংগ্রেস আসলে বিজেপি হুবহু প্রতিরূপ মাত্র। এই চার্জশিটের কথা প্রকাশ্যে আসতেই প্রশ্ন উঠছে, তবে কি ক্ষমতায় আসার পর নিজেদের অবস্থান বদল করল কংগ্রেস? যদিও সে অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন গেহলট। মুখ বাঁচাতে তিনি বলেন, “বিজেপি সরকারের আমলে ওই ঘটনার তদন্ত করা হয়েছিল। এবং সে সময় চার্জশিট পেশ করা হয়।গেহলটের আরও আশ্বাস, ‘‘কোনও অসঙ্গতি মিললে ঘটনার পুনরায় তদন্তে করা হবে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment