পঞ্চায়েত সংবাদ 

রাজ্যজুড়ে সবুজ ঝড় বইলেও শাসক দলের কাঁটা ভাঙড়

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বেলা গড়াতেই প্রত্যাশামতো রাজ্যের সব জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের জয়জয়কার। বাঁকুড়া, দুই বর্ধমান, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি সহ রাজ্যের সবকটি জেলাতেই প্রায় ৮৫ থেকে ৯০ শতাংশ আসনেই জয়ী হয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীরা। কিন্তু তৃণমূূূল কংগ্রেসের এই বিপুল জয়ের মধ্যেই কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে ভাঙড়ে নির্দল প্রার্থীদের জয়। সেখানে একাধিক আসনে জয়ী হয়েছে জমি রক্ষা কমিটি।

এরা প্রত্যেকেই নির্দল থেকে পঞ্চায়েতে প্রার্থী হয়েছিলেন। তবে শাসক দলের ক্যাডারদের তান্ডবে প্রথমে এরা কেউই মনোনয়ন জমা দিতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত মোট ৮ জন প্রার্থী ভাঙড়ের পোলেরহাট ২ গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে ও একজন প্রার্থী মাছিভাঙা পঞ্চায়েত সমিতি থেকে অনলাইনে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন। প্রথমে নির্বাচন কমিশন তা গ্রহণ না করলেও পরে হাইকোর্টের নির্দেশে সেই সব মনোনয়ন গ্রহণ করতে বাধ্য হয়েছিল কমিশন। এদের মধ্যে ৬ জন গ্রাম পঞ্চায়েত প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। তবে ভাঙড়ের মাছিভাঙা পঞ্চায়েত সমিতিতে জমি রক্ষা কমিটির প্রার্থী সেখ শরিফুল ইসলাম স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আরাবুল ইসলামের কাছে প্রায় ২০০০ ভোটে পরাজিত হয়েছেন।

ভাঙড়ের এই রায়ে স্পষ্ট সরকার সেখানে জমি অধিগ্রহণ করে যে পাওয়ারগ্রিড তৈরির চেষ্টা করছে, তাতে সন্তুষ্ট নন এলাকার মানুষ। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, সরকার রাজ্য জয়ের অহংকারে যদি ভাঙড়ে জোর করে পাওয়ারগ্রিড তৈরির চেষ্টা করে, তাহলে আগামীদিনে হয়তো বিপদের সম্মুখীন হতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে। কারণ সেক্ষেত্রে ভাঙড়ই হবে দ্বিতীয় নন্দীগ্রাম।


শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment