আন্তর্জাতিক 

ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়ে ধর্মীয় স্বাধীনতার পাঠ শেখালেন মার্কিন বিদেশ সচিব

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কয়েক দিন আগেই মার্কিন কংগ্রেসে এক রিপোর্টে ভারতে সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় স্বাধীনতা বিপন্ন বলে মন্তব্য করা হয়েছিল । তা নিয়ে দেশজুড়ে তো বটেই আন্তর্জাতিক মহলেও ভারতের চিরন্তন আদর্শ আঘাত পেয়েছিল । যদিও শাসক দল বিজেপি অবশ্য পত্রপাঠ এই রিপোর্ট খারিজ করে দিয়েছিল । কিন্ত মার্কিন কংগ্রেস সেই রিপোর্ট বাতিল করেনি ।

বরং গতকাল ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়ে মার্কিন বিদেশ সচিব ধর্মীয় স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল করে বুঝিয়ে দিলেন এখানে যা চলছে তা মোটেই সন্তোষজনক নয় । মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পে ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়েও খোদ ভারতে এসে ধর্মীয় স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল করে বুঝিয়ে দিলেন, ভারত ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকলেও ধর্মীয় হিংসার বিষয়টি নিয়ে তাঁরা অন্য কিছু ভাবছেন। পম্পেও বলেন, বিশ্বের চারটি প্রধান ধর্মের পীঠস্থান ভারত। তাই ধর্মীয় স্বাধীনতার পক্ষে সবার আগে দাঁড়ানো দরকার।

গত সপ্তাহে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের বার্ষিক ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম রিপোর্টে প্রকাশিত হয় ভারতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলি হিংসার শিকার হচ্ছে। সেই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয় ভারতে বিশেষত মুসলমানরা চরমপন্থী হিন্দু গোষ্ঠীর দ্বারা হিংসার শিকার হচ্ছে। গো-মাংস ভক্ষণ নিয়ে হিংসার বলিও হতে হচ্ছে তাঁদের। এই পরিস্থিতিতে পম্পেওয়ের বার্তা ভারতের কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। রিপোর্ট প্রকাশের পরই ভারত সরকারে তরফে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রামকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, উভয়েই এমন নেতা, যাঁরা ঝুঁকি নিতে ভয় পান না এবং উভয় দেশই তাই এক সঙ্গে হাত মিলিয়ে চলতে চায়। উভয়েই উচ্চাকাঙ্ক্ষাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment