দেশ 

‘‘নেহরুর পথ ধরেই আমাদের সকলকে এগোতে হবে’’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভবিষ্যৎ ভাবনা , নেহেরুকে অনুসরণ করার কথা বলতে হচ্ছে এটাই আমাদের জয় দাবি অধীরের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গত পাঁচ বছর ধরে যিনি অনবরত জওহরলাল নেহেরুকে আক্রমণ করে গেছেন সেই নরেন্দ্র মোদী কিনা দ্বিতীয় ক্ষমতায় এসেই রাষ্ট্রপতির ভাষণের ধন্যবাদ জ্ঞাপন বক্তব্যে নেহেরু প্রশস্তিতে ভরিয়ে দিলেন যা দেখে  রাজনৈতিক মহল বিস্মিত । আসলে কংগ্রেসের লোকসভা দলনেতা অধীর চৌধুরি বক্তব্য রাখতে গিয়ে তথ্য প্রমাণসহ দেখিয়ে ছিলেন ভারতের উন্নতিতে নেহেরু ও কংগ্রেস দলের অবদান । সেকথা কেন প্রধানমন্ত্রী স্বীকার করছেন না তা নিয়ে অধীর প্রশ্ন তুলেছিলেন । সেই প্রশ্নেই খানিকটা ঘাবড়ে যান নরেন্দ্র মোদী । তাই ইন্দিরা গান্ধী নয় দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ও কংগ্রেসের শেষ প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের প্রশংসায় ভরিয়ে দেন । তাই দেখা গেল গত পাঁচ বছর তো বটেই , সদ্য সমাপ্ত লোকসভা ভোটের প্রচার-পর্বেও কাজ ‘না করতে পারা’র দোষ চাপিয়েছেন জওহরলাল নেহরুর ঘাড়ে! পাঁচ বছর ধরে মনমোহন সিংহকেও ছাড়েননি। কখনও ‘মৌন-মোহন’, কখনও ‘রেনকোট পরে স্নান করেন’ বলে কটাক্ষ করেছেন। আজ সেই নেহরু-মনমোহনকেই প্রশস্তিতে ভরিয়ে দিলেন নরেন্দ্র মোদী! মনমোহন-নরসিংহ রাওকে ‘ভারতরত্ন’ না দেওয়ার জন্য কংগ্রেসকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন, আবার প্রণব মুখোপাধ্যায়কে ‘ভারতরত্ন’ দেওয়ার কৃতিত্ব দিলেন নিজেকেই।

মোদী এ দিন বলেন, ‘‘নরসিংহ রাও এবং ইউপিএ-র প্রথম দফার পরে মনমোহন সিংহকে ভারতরত্ন দেওয়া কথা ভাবা হয়নি। পরিবারের বাইরের লোকেরা কিছুই পান না। অথচ ‘প্রণবদা’ কোন দলের জন্য নিজের জীবন সমর্পণ করেছেন, তা না ভেবেই তাঁর অবদানের কথা বিবেচনা করে আমরা তাঁকে ভারতরত্ন দিয়েছি।’’ মোদী তাঁর বক্তৃতা শেষ করলেন নেহরুকে ‘মহাপুরুষ’ অ্যাখ্যা দিয়ে এবং ১৯৫১ সালে নেহরুর একটি উদ্ধৃতি দিয়ে। কংগ্রেসের প্রথম ইস্তাহার ঘোষণার আগে নেহরু যেখানে স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন, ‘‘অধিকার আর সুবিধার জন্য কর্তব্য ভুলে গেলে বাকি দু’টিও থাকবে না।’’ এ দিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘নেহরুর পথ ধরেই আমাদের সকলকে এগোতে হবে।’’

কংগ্রেস নেতারা বলছেন , আসলে সোনিয়া গান্ধীদের টার্গেট করার লক্ষ্যেই নেহেরু , মনমোহন ও নরসিমা রাও-র প্রশংসা করলেন মোদী । এক কংগ্রেস কথায় ,প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পরে এ বারে মনমোহন সিংহ, নরসিংহ রাওকে যদি মোদী সরকার ‘ভারতরত্ন’ দেয়, আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। কংগ্রেসের মধ্যে ফাটল ধরিয়ে আমাদের দলের নেতাদের কেড়ে নিতেই এমন চাল দিচ্ছেন মোদী। তা না হলে আজকের বক্তৃতাতেই গুজরাতে সর্দার সরোবর বাঁধ নির্মাণ নিয়ে নেহরু গড়িমসি করেছিলেন বলে অভিযোগ তুলে তাঁকে তুলোধনা করেছেন মোদী।’’ অধীর বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী এখনও ভোটের রেশ কাটিয়ে উঠতে পারেননি। এত দিন তিনি কংগ্রেসের কোনও নেতাকে উদ্ধৃত করতেন না। আজ নেহরুকে উদ্ধৃত করতে বাধ্য হয়েছেন। সেটাই আমাদের বড় জয়।’’

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment