কলকাতা 

সব রাজনৈতিক দলের সভাপতিদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে যাচ্ছেন না মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সংঘাত জারি রাখলেন । গতকাল সর্বদলীয় বৈঠকে তৃণমূল প্রতিনিধি সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে বলে যে অভিযোগ করেছিলেন তারপরই প্রধানমন্ত্রী বলেন , আপনার দলনেত্রীকে ১৯জুনের বৈঠকে যোগ দিতে বলবেন । সেখানে এ নিয়ে আলোচনা হবে । সেই মোতাবেক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পক্ষে সংসদ বিষয়ক দফতরের মন্ত্রী চিঠি পাঠিয়ে সব দলের সভাপতির কাছে বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান হয়েছে ।

সেই চিঠি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও পাঠানো হয় । আজ তৃণমূল নেত্রী জানিয়ে দিয়েছেন তিনি সর্বদল বৈঠকেও যাচ্ছেন না। সংসদ বিষয়ক মন্ত্রীকে চিঠি লিখে আজ মঙ্গলবার সে কথা জানিয়ে দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল চেয়ারপার্সন । ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা এত অল্প সময়ের নোটিসে সম্ভব নয়, তাই এই বৈঠকে তিনি যাচ্ছেন না— জানিয়েছেন মমতা।

আগামী কাল অর্থাৎ বুধবার সর্বদল বৈঠকটি হবে। গোটা দেশেই লোকসভা ও বিধানসভার নির্বাচন একসঙ্গে করার বিষয়ে আলোচনা করতেই মূলত এই বৈঠক ডাকা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল চেয়ারপার্সন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সে চিঠির প্রাপ্তিস্বীকার করেছেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট মন্ত্রককে পাল্টা চিঠি পাঠিয়ে তিনি জানিয়েছেন, যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করার জন্য এই বৈঠক ডাকা হয়েছে, সেই বিষয় নিয়ে এ ভাবে আলোচনা সম্ভব নয়।

সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশীকে চিঠিটি পাঠিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি লিখেছেন— ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’-এর মতো একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে ঠিক মতো আলোচনা করা এত কম সময়ের নোটিসে সম্ভব নয়। মমতার ব্যাখ্যা, এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে হলে সংবিধান বিশেষজ্ঞ, নির্বাচন বিশেষজ্ঞ এবং দলের সদস্যদের সঙ্গে আগে কথা বলা দরকার, তাড়াহুড়ো করে এই বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসা সম্ভব নয়।

দেশের সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশীকে তৃণমূল চেয়ারপার্সন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ, ‘‘এই বিষয়টি নিয়ে একটি শ্বেতপত্র তৈরি করুন এবং তা সব রাজনৈতিক দলকে দিন, পর্যাপ্ত সময় দিয়ে এ বিষয়ে তাদের মতামত জানতে চান।’’ এই ভাবে এগোলেই ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’ সংক্রান্ত নীতি বা ব্যবস্থা প্রণয়নের বিষয়ে ভাল পরামর্শ দেওয়া সম্ভব হবে বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করছেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment