কলকাতা 

জুনিয়র ডাক্তারদের পর এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরাও আন্দোলনের পথে , ছুটে গেলেন শিক্ষামন্ত্রী ; কেন আন্দোলন জানতে চান ? ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার হতে না হতে এবার রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরা বিদ্রোহ করলেন । সংবাদে প্রকাশ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগের এক অধ্যাপিকার জাত নিয়ে কটাক্ষ করে কতিপয় ছাত্র । এরা সবাই তৃণমুল ছাত্র পরিষদের সঙ্গে যুক্ত । কয়েক জন অধ্যাপককে গায়ের রং নিয়েও  তারা অপত্তিকর মন্তব্য করে।সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চার বিভাগীয় প্রধান তাঁদের পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেন উপাচার্যের কাছে। আরও কয়েক জন অধ্যাপক এবং শিক্ষক পদত্যাগের ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

এরই প্রতিবাদে অর্থনীতি, রাষ্ট্র বিজ্ঞান, এডুকেশন এবং সংস্কৃত বিভাগের প্রধানরা পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন উপাচার্যের কাছে। দু’জন ডিরেক্টরও পদত্যাগ করতে চেয়েছেন।

এই ঘটনায় সরাসরি অভিযোগের আঙুল টিএমসিপি-র দিকে উঠলেও, তারা তা অস্বীকার করেছে। কয়েক জন অশিক্ষককর্মীর বিরুদ্ধেও দুর্ব্যবহারের অভিযোগে সরব হয়েছেন অধ্যাপকরা। ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরীর নির্দেশে প্রাথমিক তদন্ত শুরু হয়েছে।

পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝতে পেরে আসরে নামেন খোদ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।  আজ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিটি রোড ক্যাম্পাসে পৌঁছন তিনি। শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ঠ মহলে এ নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, অধ্যাপক এবং শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকের পর পার্থবাবু বলেন, ‘‘যে ধরনের অভিযোগ সংবাদমাধ্যমে দেখলাম, তা আমাদের ঐতিহ্যের মোটেই শ্রীবৃদ্ধি ঘটায় না। ওঁদের বিষয়গুলো শুনেছি। ইতিমধ্যেই তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন উপাচার্য। সেই তদন্তে যদি কেউ দোষী সাব্যস্ত হয়, কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কেউ ছাড় পাবে না।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘যাঁরা ইস্তফা দিয়েছেন তাঁদের অনুরোধ করেছি, পদত্যাগপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ার। যাঁরা ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করছেন, তাঁদেরও অনুরোধ করেছি।’’

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment