কলকাতা 

আমি কথা বলতে চেয়েছিলাম , ওরা চায়নি : মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : এনআরএসের ঘটনার পরের দিনেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে এনআরএসের জুনিয়র চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলতে পাঠিয়েছিলেন । এমনকি আন্দোলনকারী জুনিয়র চিকিৎসকদের সঙ্গে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী টেলিফোনে কথা বলতে চেয়েছিলেন । কিন্ত আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তাররা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চায়নি । শনিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

একটা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে গেছে , তারপর পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে । এমনকি জুনিয়র ডাক্তারদের সব দাবি প্রশাসন ও সরকার মেনে নিয়েছে তারপরেও তারা কাজে যোগ দিচ্ছেন না। রোগীরা বঞ্চিত হচ্ছে চিকিৎসা পরিষেবা থেকে । বেশ কয়েকজন শিশু মারা গেছে । ক্যানসার রোগীরও চিকিৎসা হচ্ছে না । তিনি এদিন স্পষ্ট বলেন , কাজে যোগ দিন । সব সমস্যার সমাধান আন্তরিকভাবে প্রশাসন করবে ।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন , ওরা আমার সঙ্গে কথা বলতে চায়নি । আমার মন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেননি । এরপর আমি পুলিশ কমিশনারকে পাঠিয়েছিলাম । তিনি ৩ঘন্টা ধরে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে বৈঠক করেন । তা সত্ত্বে সমাধান হয়নি । এরপর কথা বলতে যান স্বাস্থ্য সচিব রাজীব সিনহা । তিনিও আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন , এরপর যান স্বাস্থ্য ও শিক্ষা সচিব তিনি কথা বলেন । তাতে সমাধান হয়নি । গতকাল রাজ্যের সবচেয়ে খ্যাতমান ৫ জন প্রবীণ চিকিৎসককে কথা বলার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয় । সেই মত ওই ৫ জন সিনিয়র চিকিৎসক কথা বলেন এনআরএসের আন্দোলনকারীদের সঙ্গে । এ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন আমি আজ ৫ ঘন্টা বসেছিলাম নবান্নে জুনিয়র ডাক্তাররা কথা বলতে এলেন না । নবান্ন হচ্ছে রাজ্যের মূল সেক্রেটারিয়েট যেটা সংবিধান মোতাবেক স্থাপিত সরকার পরিচালনা করে থাকে । সেই সেক্রেটারিয়েটে কেন আসতে চাইছেন না ? এনিয়ে প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী ।

তিনি দাবি করেন আমি এবং সরকার সব রকমভাবে এনআরএস কান্ডের পর তৎপরতার সঙ্গে সমাধানের ব্যবস্থা করেছি । এমনকি যারা হাসপাতালে হামলা করেছে, জুনিয়র ডাক্তারদের মারধোর করেছে তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কড়া ধারায় কেস রুজু করা হয়েছে ।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment