জেলা 

ভাটপাড়া পুরসভার দখল নিল গেরুয়া শিবির ; রাজ্যে প্রথম বিজেপি-র দখলে পুরবোর্ড

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : অর্জুন সিং দলত্যাগের পরেই ভাটপাড়া পুরসভাও য়ে তৃণমূলের হাতছাড়া হতে চলেছে তা পরিস্কার হয়ে যায় । তা সত্ত্বে উত্তর ২৪ পরগণার তৃণমূল সভাপতি যেভাবে হুংকার দিচ্ছিলেন তাতে মনে হচ্ছিল শেষ পর্যন্ত ভাটপাড়া পুরসভা হয়তো তৃণমূলের দখলে থেকে যাবে । এমনকি হঠাৎ করে অনাস্থা এনে যেভাবে ভোটের আগে অর্জুন সিংকে সরিয়ে দেওয়া হল তাতে এই ধারনা দৃঢ় হয় ।

কিন্ত শেষ পর্যন্ত ভাটপাড়া পুরবোর্ড দখলে নিল বিজেপি। ভাটপাড়া পুরসভার নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন অর্জুন সিংয়ের ভাইপো সৌরভ সিং। ২০ নং ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলর সৌরভ। মঙ্গলবার পুরপ্রধান নির্বাচনে বিজেপির পক্ষে ভোট দেন ২৬ জন কাউন্সিলর। পুরপ্রধান নির্বাচনে এদিন ভাটপাড়া পুরসভায় আসেন তৃণমূলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সোমনাথ তালুকদার। তবে তৃণমূলের অন্যান্য কাউন্সিলররা এদিন পুরপ্রধান নির্বাচনে অংশ নেননি। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই সদ্য নির্বাচনে জয়ী বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং দাবি করেন ভাটপাড়া পুরসভা তাঁদের দখলে। আগে ভাটপাড়া পুরসভার পুরপ্রধান ছিলেন একদা তৃণমূলের বাহুবলী নেতা অর্জুন সিং। দলত্যাগের পরই আস্থা ভোটে ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান পদ থেকে সরানো হয় অর্জুনকে।

প্রসঙ্গত, অর্জুন সিংয়ের বিজেপিতে যোগদানের পরই ভাটপাড়া পুরসভার পুরপ্রধান পদ থেকে তাঁকে সরাতে উঠেপড়ে লাগে তৃণমূল। গত ৮ এপ্রিল ভাটপাড়া পুরসভায় আস্থা ভোটে পুরপ্রধান পদ থেকে অর্জুন সিংকে অপসারিত করা হয়। সেদিন ২২-১১ ভোটে হেরে যান অর্জুন।

কয়েকদিন আগেই নৈহাটি, হালিশহর, কাঁচরাপাড়া পুরসভার একঝাঁক তৃণমূল কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দেন। যার জেরে ওই তিন পুরসভা তৃণমূলের হাতছাড়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এ প্রসঙ্গে মুকুল জানান, কাঁচরাপাড়া পুরসভার মোট আসন ২৪। পুরসভার চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান-সহ ১৭ জন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন, ফলে এই পুরসভা এখন বিজেপির। হালিশহর পুরসভায় মোট আসন ২৩। ১৭ চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান-সহ ১৭ কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। হালিশহর পুরসভা তৃণমূলের নয়, বিজেপির। নৈহাটি পুরসভায় মোট আসন ৩১। ২৯ কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। নৈহাটি পুরসভা দখল করেছে বিজেপি।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment