জেলা 

মঙ্গলবারই চার পুরসভার কাউন্সিলার সহ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন শুভ্রাংশু রায় ! চার পুরসভা তৃণমূলের হাত ছাড়া হতে চলেছে ?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : নরেন্দ্র মোদীর ক্যাবিনেটে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ । এই রাজ্য থেকে কম করে ৫ জন মন্ত্রী হতে চলেছেন । এদের মধ্যে প্রথম সারিতে আছেন মুকুল রায় , বাবুল সুপ্রিয় , এসএস আহওয়ালিয়া , লকেট চ্যাটার্জি , ডা. সুভাষ সরকার , জন বার্লার নাম । বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নাম থাকলেও তিনি নিজে থেকে মন্ত্রী হতে চাইছেন না। তিনি চান এরাজ্যে থেকে সংগঠনের দেখভাল করতে । উত্তরপ্রদেশের পর পশ্চিমবঙ্গ থেকেই সবচেয়ে ভাল ভোট পেয়েছে বিজেপি । তাই বাংলাকে পাখির চোখ করতে চাইছেন । মুকুল রায়কে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে  বলে জানা  গেছে ।

এদিকে আজ বিকেলেই দিল্লি গেলেন মুকুল রায় ; তার সঙ্গে গেছেন তৃণমূলের সাসপেন্ড বিধায়ক ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায় । মনে করা হচ্ছে শুভ্রাংশু মঙ্গলবারই বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন । জানা গেছে এদিন মুকুল রায়ের সঙ্গে দিল্লির বিমানে উঠেছেন বীজপুর, কাঁচরাপাড়া এলাকার কয়েকজন তৃণমূল নেতাও। সূত্র মারফৎ এমনটাই জানা যাচ্ছে। রবিবার রাতে দফায় দফায় কাঁচরাপাড়ার রায় পরিবারে বৈঠকে বসেছেন পিতা-পুত্র। পারিবারিক বৈঠকের পরই আজ মুকুল-শুভ্রাংশুর দিল্লি যাত্রা শুভ্রাংশুর বিজেপিতে যোগদানের ইঙ্গিত বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

উল্লেখ্য, শুভ্রাংশুর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা কয়েকদিন ধরেই চলছে বঙ্গ রাজনীতিতে। বহুবার তৃণমূল নেতৃত্বের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন শুভ্রাংশু। লোকসভা নির্বাচনের মুখে এক নির্বাচনী সভায় শুভ্রাংশু দলেরই শীর্ষ নেতৃত্বকে নিশানা করেছিলেন। অন্যদিকে, মুকুল রায় বলেছিলেন, ‘‘শুভ্রাংশুর বিজেপিতে যোগদান স্রেফ সময়ের অপেক্ষা’’। গত সপ্তাহে শুভ্রাংশুর সাংবাদিক বৈঠকে বলেছিলেন,

‘‘আমার কাছে সব দলের দরজা খোলা রয়েছে। নতুন ইনিংস শুরু করার সম্ভাবনা রয়েছে। হয় বসে যেতে পারি বা অন্য দলও হতে পারে’’। ওই দিন আরও বলেন‘‘যদি তৃণমূল বর্জন করে, তবে কোনও না কোনও দলে তো যেতে হবেই একটা ওপিনিয়ন নেওয়ার দরকার। বাড়িতে বলতে হচ্ছে, দলে কৈফিয়ৎ দিতে হচ্ছে, বন্ধুবান্ধবরাও বলছে, কী করছি। সকলকে কৈফিয়ৎ দিতে হচ্ছে। দল কি আমায় বিশ্বাস করে? প্রশ্নচিহ্নের সামনে দাঁড়িয়ে আমি’’। সকালে ওই সাংবাদিক সম্মেলনের পরেই বিকেলে দলবিরোধী মন্তব্য করার দায়ে শুভ্রাংশু রায়কে ৬ বছরের জন্য সাসপেন্ড করে তৃণমূল।

আর সাসপেন্ড হওয়ার পরেই মুকুল পুত্র বলেছিলেন মুক্ত বাতাসে নিঃশ্বাস নিতে পারছি । এরপরেই সমগ্র কাঁচরাপাড়ার এলাকায় তৃণমূলের পার্টি অফিসে বিজেপির পতাকা উড়তে থাকে । তাই মুকুল পুত্র যে বিজেপিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন তা নিয়ে কোনো সংশয় নেই ।

এদিকে , বিশেষ সূত্রে জানা গেছে , শুধু মুকুল পুত্র নন , উত্তর ২৪ পরগণা জেলার একাধিক পুরসভার কাউন্সিলারও আগামী কাল বিজেপিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন । এদের মধ্যে কাঁচরাপাড়ার ২৪ জন কাউন্সিলারের মধ্যে ১৬ জন ,হালিশহরের ২৩ জন কাউন্সিলারের মধ্যে ১৩ জন এবং কল্যাণী ও নৈহাটি পুরসভার একাধিক কাউন্সিলার আজ মুকুল রায়ের সঙ্গে বিকেল ৫ টারি বিমানে দিল্লি উড়ে গেছেন । কালই তাঁরা যোগ দেবে বিজেপিতে । কালই কাঁচরাপাড়া ও হালিশহর এই দুটি পুরসভা দখল নেবে বিজেপি । অন্যদিকে , কল্যাণী ও নৈহাটি পুরসভাও কয়েকদিনের মধ্যে দখলে আসবে বলে মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে জানা গেছে ।

 

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment