দেশ 

৫ বছর পর সাংবাদিক সম্মেলনে মোদী-শাহ জামানার উন্নয়নের খতিয়ান নয় , ক্ষমতায় ফিরছি বিপুল গরিষ্ঠতা নিয়ে , মোদীই হচ্ছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী দাম্ভিক উচ্চারন মোদী-শাহর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের প্রচার পর্বের শেষে সাংবাদিক বৈঠক করলেন নরেন্দ্র মোদীও অমিত শাহ । বিগত ৫ বছরে মধ্যে এই প্রথম মোদী সাংবাদিক সম্মেলন করলেন ।

ভোটের ফল ঘোষণার আগেই আজ মোদী –শাহ জানিয়ে দিলেন তাঁরাই ক্ষমতায় আসছেন ।  অমিত শাহ বলেন, এ বারও বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করবে বিজেপি।আমি আবারও বলছি, ৩০০-রও বেশি আসন পাব আমরা, মোদীজি আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন । এরপরেই অদ্ভূতভাবে দেখা গেল অমিত শাহ সরাসরি সাংবাদিকদের কাছে প্রশ্ন করেন , আমরা তো সারা দেশেই লড়ছি, আমাদের জন্য গন্ডগোল হলে সারা দেশেই হত, শুধু পশ্চিমঙ্গেই কেন অশান্তি হচ্ছে, আপনারা মমতাকে প্রশ্ন করুন । দেড় বছরে বিজেপির ১৮০ জন কর্মী মারা গিয়েছে, মমতার কাছে কী জবাব আছে এর?

এরপরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন , আমাদের সরকারে একটাই বিশেষত্ব ছিল, একদম শেষ প্রান্তের মানুষটির সঙ্গেও যোগাযোগ । নতুন সরকার আবারও আমরা শুরু করব । ইমানদারি ১৭ মে থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল, সাট্টা বাজারে সবাই ডুবে গিয়েছিল।  আমি ফের আপনাদের আশির্বাদ নিতে এসেছি, এবং আমি দেখতে পাচ্ছি, দেশবাসী আগেই সেই সমর্থন দিয়ে রেখেছে। ‍তিনি বলেন , পাঁচ বছরে অনেক উত্থান পতন এসেছে, কিন্তু কখনও দেশ অসুরক্ষিত হয়নি । কিন্তু অন্যরা পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন, নয়তো পারিবারিক সূত্রে ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন এক সময় দলের নেতাদের জন্য চা বানাতাম । আজ আপনাদের আর্শীবাদে আমরা দ্বিতীয় সরকার গড়তে চলেছি । তিনি বলেন এক সময় একটি পরিবার সরকার গড়ত আর এখন দেশের মানুষ সরকার গড়ে ।

তিনি দাবি করেন , আমাদের সরকারের আমলে আইপিএল, নবরাত্রি, রমজান থেকে সব কিছুই শান্তিতে পালিত হয় ।  আমাদের গণতন্ত্র কত শক্তিশালী, সেটা বিশ্ববাসী দেখেই বুঝতে পারে  আমি মনে করি, কিছু কথা আমরা সারা দেশের কাছে গর্ব করে বলতে পারি যে, এটা বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment