দেশ 

‘‘একদা স্বাধীন সাংবিধানিক সংস্থাটির লজ্জাকর পতন’’ নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কড়া প্রতিক্রিয়া কংগ্রেসের ; ক্ষমতার লোভে বিজেপি বাংলার সমস্ত আইকন, তাঁদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে নষ্ট করছে’’ বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে আহমেদ প্যাটেলের প্রতিক্রিয়া

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কলকাতায় বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার জন্য সরাসরি বিজেপিকে দায়ী করল জাতীয় কংগ্রেস । একই সঙ্গে নির্বাচনের শেষ দফায় যেভাবে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব এবং এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তারও নিন্দা করেছে কংগ্রেস । কংগ্রেস বলেছে নির্বাচন কমিশন তার সাংবিধানিক অধিকারকে প্রয়োগ করে দেশে সুষ্ঠ নির্বাচন করার জন্য নিরপেক্ষ অবস্থান নেওয়া উচিত । মোদী-শাহ দেশজুড়ে যে তানাশাহী চালাচ্ছে সেদিকেও নির্বাচন কমিশনকে নজর রাখতে হবে । নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে হবে । শুধু বিজেপির অভিযোগের ভিত্তিতে পদক্ষেপ করলে নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন উঠবে । একই সঙ্গে পশ্চিমবাংলায় কমিশন যেভাবে প্রচারে সময় একদিন কমিয়ে দিয়েছে তা ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেছে কংগ্রেস ।

বুধবার রাতেই কংগ্রেস নেতা রণদীপ সুরজেওয়ালা পরপর দু’টি টুইট করেন । প্রথমটির বক্তব্য, গণতন্ত্রের ইতিহাসে এটি এক কালো দিন। পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে কমিশনের সিদ্ধান্তে সংবিধানের ১৪ ও ২১ নম্বর অনুচ্ছেদ লঙ্ঘিত হয়েছে। ৩২৪ নম্বর অনুচ্ছেদে সমান সুযোগ দেওয়ার কথা বলা রয়েছে, সেই দায়িত্ব পালনেও ব্যর্থ হয়েছে কমিশন। ক্ষমার অযোগ্য ভাবে সংবিধানকে প্রতারণা করা হয়েছে। দ্বিতীয় টুইটে আরও সরাসরি আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস মুখপাত্র,  ‘‘প্রধানমন্ত্রী মোদী ও অমিত শাহের বিরুদ্ধে ১১টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে— কিছু করা হয়নি। বিজেপির হিংসা ও অমিত শাহের হুমকি— কিছু করা হয়নি। এ বার মোদীর ১৬ তারিখের সভার অনুমতি দিয়ে বাকি সকলকে আটকানো হল। একদা স্বাধীন সাংবিধানিক সংস্থাটির লজ্জাকর পতন।’’

এদিকে , বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে কংগ্রেসের যুক্তি, বিদ্যাসাগর প্রথম নন। বিজেপি-আরএসএস এর আগে পেরিয়ার থেকে শুরু করে বি আর অম্বেডকরের মূর্তিতেও হামলা চালিয়েছে। বিদ্যাসাগরের মতো ‘জাতীয় আইকন’-এর মূর্তি ভাঙার নিন্দা করে অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি বলেন, ‘‘মোদী সরকার এই ধরনের সব রকম সাংস্কৃতিক পরিচিতির উপর আঘাত করে ভারতের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে প্রহসনে পরিণত করছে। যে ভাবে এক জন জাতীয় আইকনকে অপমানিত করা হয়েছে, আমরা শীর্ষ স্তর থেকে এর ভর্ৎসনা করছি, কঠোর শব্দে নিন্দা করছি।’’

সোনিয়া গান্ধীর রাজনৈতিক সচিব আহমেদ পটেল বলেন, ‘‘আমরা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার নিন্দা করছি। বাংলার মানুষ এই অপমান ক্ষমা করবে না। ক্ষমতার লোভে বিজেপি বাংলার সমস্ত আইকন, তাঁদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে নষ্ট করছে।’’

কংগ্রেস এই সময় তৃণমূলের পাশে দাঁড়িয়ে বার্তা দিল তারা তাদের সঙ্গে আছে এবং মোদী বিরোধী জোট গঠনে কংগ্রেস যে আন্তরিক সেটা আর একবার প্রমাণ করল ।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment