জেলা 

১০ দিনের পুলিশি হেফাজতে আরাবুল

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ভাঙড়ে নির্দল সমর্থক হাফিজুল মোল্লা খুনে অভিযুক্ত প্রাক্তন বিধায়ক তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আরাবুল ইসলামকে ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিল বারুইপুর আদালত।  তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আরাবুল ইসলাম কে আজ বারুইপুর আদালতে তোলা হয়। এর পর দুইপক্ষের বক্তব্য শোনার পর এদিন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আরাবুল ইসলামকে দশ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

শুক্রবার ভাঙড়ে নির্দল প্রার্থীর সমর্থনে মিছিল বেরিয়েছিল। মিছিলে সামিল হয়েছিল কয়েক হাজার মানুষ। নির্দল প্রার্থীর সমর্থনের মিছিল লক্ষ্য করে আরাবুল বাহিনী গুলি চালায় বলে অভিযোগ ওঠে। ঘটনায় নির্দল সমর্থক হাফিজুল মোল্লার মাথায় গুলি লাগে। এর পরে তাঁকে উদ্ধার করে রাজারহাটে একটি নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এর পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে অভিযুক্ত আরাবুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিন বারইপুর আদালতে তোলা হলে তাকে ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

এদিকে আদালতে তোলার সময় নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেছেন তৃণমূলের এই প্রাক্তন বিধায়ক    আরাবুল ইসলাম। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আরাবুল বলেন, বিকেল চারটের সময় যখন ঘটনাটি ঘটে তখন তিনি স্থানীয় একটি মসজিদে নামায পড়তে গিয়েছিলেন। এর পরই মাওবাদী ভূমি রক্ষা কমিটির নেতারা গুলি চালাতে থাকে। সেই গুলিতেই প্রাণ হারিয়েছে হাফিজুল। ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসের কেউই জড়িত নয় বলে দাবি করেছেন তিনি।  সেই সঙ্গে প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করে তাদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন  তৃণমূলের এই ডাকসাইটে নেতা।


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment