দেশ 

অস্বস্তিতে ফেলতে রোডশো তো মোদী মোদী শ্লোগান ভক্তদের , গাড়ি থেকে নেমে এসে করমর্দন প্রিয়াঙ্কার ; সৌজন্য রাজনীতির শবক শেখালেন মোদী-অমিত শাহদের রাজীব কন্যা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  তিনি পারেন । কারণ তিনি নেহেরু-গান্ধী পরিবারের উত্তরসুরি । রাজনৈতিক সৌজন্যে ইতিহাসে নেহেরু-গান্ধী পরিবারের মত রের্কড কারও নেই । বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তো সৌজন্যে ধার দিয়েও হাঁটেন না । না হলে আজ থেকে তিরিশ বছর আগে দেশের জন্য শহীদ হয়ে যাওয়া এক জননেতাকে ভ্রষ্টাচার নং ১ বলতে পারতেন না । কিন্ত গত সোমবার মধ্যপ্রদেশে প্রচারে গিয়ে সোনিয়া কন্যা প্রিয়াঙ্কা যে রাজনৈতিক সৌজন্য তৈরি করলেন তা থেকে দেশের তাবড় তাবড় সিনিয়র নেতাদের শিক্ষা নেওয়া উচিত ।

গতকালই শেষ দফার নির্বাচন উপলক্ষ্যে মধ্যপ্রদেশে প্রথম প্রচার শুরু করেন কংগ্রেস সাধারন সম্পাদিকা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী । এই উপলক্ষ্যে একটি রোড শো । সেই রোড শো চলাকালীন সময়ে তাঁকে অস্বস্তিতে ফেলতে কতকগুলি উৎসাহী মোদী ভক্ত, মোদী মোদী শ্লোগান দিতে থাকেন ।

কিন্তু প্রিয়ঙ্কা গাঁধী হলেন ইন্দিরার নাতনি এবং রাজীবের কন্যা। তাই তাকে খুব সহজে অস্বস্তিতে ফেলা যাবে না এটা হয়তো বুঝতেই পারেনি মোদী ব্রিগেড । তিনি মোদী মোদী শ্লোগান শোনার পর হাসি মুখে করমর্দন করে গোটা পরিস্থিতিটাকেই যেন ঘুরিয়ে দিলেন। প্রকাশ্য রাজপথে তিনি যে সৌজন্যের পরিচয় দিলেন, মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে গেল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

খবরে প্রকাশ প্রিয়াঙ্কা গাঁধীর কনভয় যে পথে যাওয়ার কথা সেখানে আগে থেকেই কয়েকজন মোদী সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। প্রিয়াঙ্কা গাঁধীর কালো গাড়ি যে মুহূর্তে তাঁদের সামনে দিয়ে যাচ্ছিল, সকলে সমস্বরে ‘মোদী মোদী’ শ্লোগান দিতে শুরু করেন। শ্লোগান প্রিয়াঙ্কার কানে যায়। মোদী সমর্থকেরা হয়তো ভেবেছিলেন, নিজের রোড শো-য়ে ‘মোদী’ স্লোগান শুনে অস্বস্তিতে পড়ে যাবেন প্রিয়াঙ্কা, কিন্তু তেমনটা কিছুই ঘটল না।

তাঁদের থেকে সামান্য একটু এগিয়ে প্রিয়াঙ্কার গাড়ি থেমে যায়। গাড়ি থেকে হাসি মুখে হাত বাড়িয়ে এগিয়ে নেমে আসেন প্রিয়াঙ্কা। রেগে যাওয়ার বদলে হাসিমুখেই তাঁদের সঙ্গে করমর্দন করেন। করমর্দন করার সময় প্রিয়াঙ্কা তাঁদের বলেন, ‘‘আপনারা আপনাদের জায়গায়, আমি আমার জায়গায়।’’ তারপর ‘অল দ্য বেস্ট’ বলে ফের গাড়িতে উঠে পড়েন। গোটা পর্বতেই তাঁর মুখে ছিল অনাবিল এক হাসি।

কিন্ত তিনি ইচ্ছে করলেই মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস শাসনের সুযোগ নিয়ে তাদেরকে গারদে পুরতে পারতেন । তা তিনি করেননি । বরং অনাবিল এক মুখ হাসি নিয়ে মোদী ভক্তদের সঙ্গে করমর্দন করে তাদেরকেই অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন । সম্প্রতি আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর একটি ভিডিয়ো ঘিরে তোলপাড় হয়েছে রাজনীতি। ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান শুনে গাড়ি থেকে নেমে রুখে দাঁড়াতে দেখা যায় মুখ্যমন্ত্রীকে। তা নিয়ে প্রচুর সমালোচনাও হয়েছে।

প্রধান প্রতিপক্ষ নরেন্দ্র মোদীর স্লোগান শুনেও প্রিয়াঙ্কা যে ভাবে এগিয়ে এসে সকলের সঙ্গে আলাপ করেছেন, তা ভারতের রাজনীতিতে সত্যিই বিরল। এটা করে তিনি এক ঢিলে দুই পাখি মারলেন । মোদীকে বুঝিয়ে দিলেন তুমি যতই আমাদের আক্রমণ কর , আমরা ভালবাসা দিয়ে সেই আক্রমণকে প্রতিহত করব । এখানেই অনন্য প্রিয়াঙ্কা ।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment