জেলা 

অভিষেককে ডায়মন্তহারবারে প্রার্থী করতে চাননি মমতা কেন ? জানতে চাইলে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : অভিষেককে লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়াতে বারণ করেছিলাম অভিষেক  , কিন্ত ডায়মন্ডহারবারের মানুষের প্রতি ওর এতই ভালবাসা যে ওকে না করতে পারলাম না । সোমবার ডায়মন্ডহারবার লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী দলের যুব নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে আয়োজিত এক নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃনমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই মন্তব্য করেন ।বজবজে আয়োজিত এই সভায় এদিনের ভাষণে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘আমি কিন্তু আপনাদের কাছে একটা সত্যিকথা বলি.. আমি কিন্তু অভিষেককে বলেছিলাম .. তুই একটা কাজ কর, তুই এবার লোকসভায় দাঁড়াস না। .. আমি তোকে রাজ্যসভা পরে করে দেব, আমার হাতে আছে..লোকসভাটা ছেড়েদে,.. কারণ তোকে সারা বাংলায় ঘুরে বেড়াতে হবে। তোকে,, বক্সি (সুব্রত বক্সি)কে, মন্ত্রীরা তো ঘোরেই..।’ তিনি আরও বলেন ,‘অভিষেক এবজন কর্মী, ভাববেন না ও কোনও আলাদা ফেসিলিটি পায়..’ ।

এরপর সভায়, অভিষেকের বক্তব্যও তুলে ধরেন মমতা। তিনি বলেন, ‘ও আমায় কী বলল জানেন,. বলল.. আমি রাজ্যসভায় এমপি হব না। আমি ডায়ামন্ডহারবারেই থাকব। আমি ডায়মন্ডহরবার ছেড়ে যাব না। .. আমি তখন বুঝতে পারলাম ডায়মন্ডহারবারের প্রতি ওর একটা ভালোবাসা আছে।..’

আসলে দলের মধ্যে অভিষেকের উত্থান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে । একাধিক সিনিয়র নেতার মনে ক্ষোভ রয়েছে । শোনা যায় শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তৃণমূলের বিবাদের মূল কারণ হল অভিষেকই । মুকুল রায় দল ছেড়েছেন অভিষেকের কারণেই , আবার সৌমিত্র খান থেকে শুরু করে তৃণমূলের একাধিক নেতার দলত্যাগের কারণ এই অভিষেকই । সুতরাং নিরবাচন চলাকালীন সময়ে অভিষেক নিয়ে মমতার এই ধরনের মন্তব্যের যথেষ্ট তাৎপর্য বহন করছে


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment