দেশ 

ক্ষমতায় এলে কংগ্রেস মূল্যবৃদ্ধি হ্রাস করতে পেট্রোপণ্যকে জিএসটি-র আওতায় আনবে প্রতিশ্রুতি রাহুলের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলায় জনরব ডেস্ক : কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী বুধবার রাতে এক ফেসবুক পোষ্টে জানিয়েছেন,  কংগ্রেস দেশের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে চিন্তিত  । মূল্যবৃদ্ধি হ্রাস করার লক্ষ্যে তাঁর দল ক্ষমতায় এলে পেট্রোল এবং ডিজেলকে গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স (জিএসটি)-এর আওতায় আনতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, এবং দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ওপর রাশ টানতে বদ্ধপরিকর। “এই বোঝা কমাতে কংগ্রেস পার্টি পেট্রোল এবং ডিজেলকে জিএসটি-র আওতায় আনবে, এবং জিনিসপত্রের বাড়তে থাকা দাম কমানোর চেষ্টা করবে”।

রাহুল গান্ধী আরও যোগ করেন যে কংগ্রেসের বিশ্বাস, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি সাধারণ মানুষের জীবনে একটি ভারী বোঝা হয়ে উঠেছে।

২০১৭ সালে যখন জিএসটি লাগু হয়, কয়েকটি ক্ষেত্রকে তার আওতার বাইরে রাখা হয়। সেগুলি হলো পেট্রোলিয়াম জাত পণ্য, মদ, রিয়েল এস্টেট এবং শক্তি।

বর্তমান পরিকাঠামোয় কেন্দ্র এবং রাজ্য, দুই সরকারই পেট্রোল, ডিজেল, অপরিশোধিত তেল, এবং প্রাকৃতিক গ্যাসের ওপর কর বসায়। কেন্দ্রীয় সরকার লাগু করে আবগারি শুল্ক, আবার রাজ্য সরকার নেয় ভ্যালু অ্যাডেড ট্যাক্স বা ভ্যাট। এর সঙ্গে যোগ হয় ডিলার কমিশন, যার ফলে গ্রাহক যে দামে পাম্প থেকে পেট্রোলজাত দ্রব্য কিনতে বাধ্য হন, তার দাম অনেকটাই চড়া।

পেট্রোল এবং ডিজেল যদি জিএসটি-র আওতায় আসে, তবে একটিই কর বসবে – ১৮ অথবা ২৮ শতাংশ হারে – যার ফলে উঠে যাবে আবগারি শুল্ক এবং ভ্যাট, যার সুবিধে শেষমেশ পাবেন পাম্প থেকে পেট্রোল বা ডিজেল কেনা গ্রাহক।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment