জেলা 

কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতে আক্রান্ত বিদায়ী সাংসদ ; কমিশনে অভিযোগ তৃণমূলের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : হাওড়া সদরে বিদায়ী সাংসদ ও রাজ্যে ক্ষমতাসীন দলের নেতা কিনা আধা সেনার হাতে ‘মার’ খেলেন ! ভাবা যায় ! আর ঘটনাটা অবিশ্বাস্য হলেও সত্য ।

তৃণমূল প্রার্থী ও বিদায়ী সাংসদ সংবাদ মাধ্যমকে ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে বলেছেন ,হাওড়ার বালিটিকুরির মুক্তরাম স্কুলে ভোটারদের বিজেপিকে ভোট দিতে বলছেন বলে অভিযোগ ওঠে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান হাওড়ার তৃণমূল প্রার্থী প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। বুথ থেকে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের বিরুদ্ধে। কলার ধরে তাঁদের টেনে বের করা হয়। মহিলাদেরও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এ ঘটনায় আধা সেনার সঙ্গে বচসা বাধে প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সেসময়ই হাওড়ার বিদায়ী সাংসদকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের। প্রসূনকে মারধরের জেরে পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা।

যদিও প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণ থেকে জানা যাচ্ছে , এদিন ভোট চলাকালীন সময়ে বেশ কয়েকজন তৃনমূল কর্মীকে সঙ্গে নিয়ে বুথের ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করেন বিদায়ী সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় । সেই সময় তৃণমূল কর্মীদের বুথে ভেতরে ঢুকতে বাধা দেয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা তখন সেন্ট্রাল ফোর্স গো ব্যাক শ্লোগান দিতে দিতে তৃণমূল কর্মীরে বুথের ভেতর ঢোকার চেষ্টা করলে কেন্দ্রীয় বাহিনী লাঠি চার্জ করে । সেই লাঠির ঘা বিদায়ী সাংসদের উপর পড়ে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment