দেশ 

রাজীব গান্ধী সম্পর্কে মোদীর কুরুচিকর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে রাহুলের টুইট ‘‘মোদীজি, আপনার লড়াইটা শেষ হয়ে গিয়েছে। আমার বাবার সম্পর্কে আপনার বিশ্বাস কিন্তু আপনাকে বাঁচাতে পারবে না’’

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নির্বাচনী সভায় শনিবার  প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গাঁধীকে  ‘সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত’ ব্যক্তি বলে চিহ্নিত করেছিলেন।  রবিবার টুইট করে বাবার অপমানের বদলা নিলেন রাহুল গান্ধী । তিনি বলেন, ‘‘আমার বাবা তো আর আপনাকে বাঁচাতে পারবেন না। আপনার লড়াই তো শেষ হয়ে গিয়েছে। এ বার তৈরি হোন আপনার কর্মফলের জন্য।’’

রাহুলকে কটাক্ষ করে শনিবার উত্তরপ্রদেশের লখনউতে এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, ‘‘আপনার বাবাকে ওঁর পারিষদরা ‘মিস্টার ক্লিন’ বলতেন। যদিও জীবনের শেষ সময়ে পৌঁছে ওঁর পরিচয় হয়েছিল দেশের ‘সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত’ ব্যক্তি।’’

তারই জবাবে রবিবার টুইটে রাহুল লেখেন, ‘‘মোদীজি, আপনার লড়াইটা শেষ হয়ে গিয়েছে। আমার বাবার সম্পর্কে আপনার বিশ্বাস কিন্তু আপনাকে বাঁচাতে পারবে না।’’

বফর্স কামান কেনার জন্য একটি সুইডিশ সংস্থার থেকে ঘুষ নিয়েছিলেন রাজীব, এমনই অভিযোগ উঠেছিল একসময়। যদিও রাজীব গাঁধীর বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার কোনও প্রমাণ নেই, বলে হাইকোর্ট রায় দিয়েছে। আশির দশকে বফর্স কেলেঙ্কারির কথা সামনে আসে। ১৯৯১ সালে রাজীব গাঁধী মারা যান।

আসলে রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে রাহুল গান্ধী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছেন। দেশজুড়ে মানুষের মুখে মুখে এখন ঘুরছে চৌকিদার চোর হ্যায় এই শ্লোগান । তাই রাফাল ইস্যু থেকে মানুষের দৃষ্টি ঘুরিয়ে দিতে মোদী বর্ফস প্রসঙ্গ তুলে আনছেন ।

অথচ বর্ফস মামলা আজ থেকে ৩২ বছর আগে শুরু হয় , রাজীব গান্ধী এই অভিযোগে হেরে গিয়েছিল । কিন্ত শেষ পর্যন্ত বর্ফস মামলায় রাজীবকে অভিযুক্ত করা যায় না । আর এই ৩২ বছর পর এই অভিযোগ তুলে সাধারন মানুষের দৃষ্টিকে কী ঘোরাতে পারবেন মোদী ? না কি রাজীব প্রসঙ্গ তুলে তিনি নিজেকে আড়াল করার চেষ্টা করছেন ? সেটাই এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে ।

 

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment