দেশ 

”বিজেপি কর্মীরা বাংলায় কাজ করতে যাওয়ার আগে মা’কে বলে যান যে তাঁরা নাও ফিরতে পারেন” : নরেন্দ্র মোদী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আবার মোদী মুখ খুললেন । শুক্রবার তিনি বারাণসীতে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার পর  ‘আজ তক’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ক্ষমতায় এসে দিদি যেভাবে পাল্টে গিয়েছেন, সেটাই তাঁকে অবাক করে। এই সাক্ষাৎকারেই তিনি বলেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন কোনও বিরোধী নেতার সঙ্গে সম্পর্কেই আদর্শগত ফারাকের প্রভাব পড়েনি। তাঁর কথায়, ‘প্রত্যেকেই নিজের গণতান্ত্রিক ভূমিকা পালন করছেন।’

এর আগেও বাংলায় বিভিন্ন জায়গায় বক্তব্য রাখতে গিয়েই মোদী বলেছেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাল্টে গিয়েছেন। এই সাক্ষাৎকারেও একই কথা শোনা গিয়েছে তাঁর গলায়। তিনি বলেছেন, ”মমতা দিদি এত বদলে গিয়েছেন দেখে খারাপ লাগে। বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন তিনি। হিংসার বিরুদ্ধে লড়াই করে ক্ষমতায় এসেছিলেন তিনি। আর আজ নির্বাচনের জন্য প্রতিনিয়ত মরতে হচ্ছে কাউকে না কাউকে।”

মোদী এও বলেন ,”আগে ভাবতাম মমতা একজন পরিশ্রমী নেত্রী। কিন্তু আমি ভুল ভেবেছিলাম।”

বারানসীতে মনোনয়ন জমা দেওয়ার আগে সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়েও মোদী বলেছেন, ”’বিজেপি কর্মীরা বাংলায় কাজ করতে যাওয়ার আগে মা’কে বলে যান যে তাঁরা নাও ফিরতে পারেন।”

দিনকয়েক আগে অক্ষয় কুমারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তাঁর জীবনের বেশ কিছু অজানা কথা শেয়ার করেছেন নরেন্দ্র মোদী। তবে মমতার সঙ্গে সম্পর্কের কথায় চমকে দিয়েছেন সবাইকে। নিয়ম করে বছরে কুর্তা, মিষ্টি এসব পাঠান মমতা। একদিকে যখন ভোটের বাজারে একে অপরকে আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণ করে চলেছেন, তার মধ্যেই মোদীর এই একটা জবাব রাজনীতিতে নতুন চমক দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সিউড়ির সভায় মুখ্যমন্ত্রী বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেন সেই মন্তব্যের। বলেন, ‘কুর্তা পাঠাই, তাতে দোষটা কোথায়?’

বীরভূমে প্রচারসভায় গিয়ে মমতা বলেন, শুধু মোদী কেন, অনেককেই উপহার পাঠান তিনি। এরকম অন্তত ১০০ জনের নাম বলে দিতে পারেন মমতা। যদিও এদিন আর কোনও নাম নেননি তিনি। জানান, দুর্গা পূজায় অনেকেই উপহার দেওয়ার রীতি আছে, তাই উপহার পাঠান তিনি। পয়লা বৈশাখে পাঠান মিষ্টি। জন্মদিনেও দেন উপহার।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment