কলকাতা 

পঞ্চায়েত নির্বাচনে অঘটন ঘটলে দায় আধিকারিকদেরইঃ হাইকোর্ট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ হাইকোর্টের রায়ে শেষ পর্যন্ত পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে জট কাটল। আজ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, রাজ্য সরকারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে নির্বাচন কমিশন সন্তুষ্ট থাকলে যেকোনো দিন তারা ভোট করাতে পারে। নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক করতে হবে কমিশনকেই। আদালত এবিষয়ে কোনও হস্তক্ষেপ করবে না।

সেই সঙ্গে আদালত স্পষ্ট ভাষায় এও জানিয়ে দিয়েছে যে, কোনও কারণে নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলে কিংবা এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে হিংসার পরিমাণ গতবারের তুলনায় বেশি হলে, যে আধিকারিকেরা নিরাপত্তা নিয়ে রিপোর্ট পেশ করেছেন দায়ী হবেন তারাই। নির্বাচনী হিংসায় কেউ মারা গেলে, তার পরিবারকে উপযুুুুক্ত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ওই আধিকারিকদের। বেতনের অর্থে ক্ষতিপূরণ দেওয়া সম্ভব না হলে, সংশ্লিষ্ট আধিকারিকের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে। তাতেও ক্ষতিপূরণ পর্যাপ্ত না হলে তার দায় রাজ্য সরকারকে নিতে হবে। এক্ষেত্রে প্রধান বিচারপতি কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘নিরাপত্তায় অব্যবস্থা ধরা পড়লে আমি মনে করব, আমাকে ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছিল। এক্ষেত্রে যা ব্যবস্থা নেওয়ার নেব।’

যদিও প্রধান বিচারপতির এই রায়ে সন্তুষ্ট নয় বিরোধীরা। তারা মনে করছে নিরাপত্তার বিষয়টি এখনও নিশ্চিত হয়নি। এক্ষেত্রে পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করছে তারা। আদালতের এই রায়ের পর বিরোধীরা ফের সুপ্রিমকোর্টে যাওয়ার কথা ভাবছে বলে বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment