আন্তর্জাতিক 

পরপর আটটি বিস্ফোরনে কেঁপে উঠল কলম্বো ; মৃত ২০৭ জন , আহত ৫০০ , মৃতের সংখ্যা বাড়ার সম্ভাবনা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পর পর আটটি বিস্ফোরণ কলম্বোয়। সংবাদসংস্থা এএফপি সূত্রে খবর, একটি হোটেলে নতুন করে বিস্ফোরণ হয়। ২ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। আজ সাত সকালে ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকা। ওই বিস্ফোরণে শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ২০৭। তবে এখনও লাফিয়ে নিহতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিভিন্ন সূত্রে খবর, কলম্বের অত্যন্ত কাছে দেহিওয়ালা মাউন্ট লাভিনিয়া দাহিওয়ালা চিড়িয়াখানার কাছে সপ্তম বিস্ফোরণটি হয়। এই বিস্ফোরণে ২ জনের মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় বিমান চলাচলও ব্যাহত হয়েছে বলে খবর। বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৪ঘণ্টা ধরে অপেক্ষা করছেন বলে অভিযোগ যাত্রীদের।

কলম্বো ন্যাশনাল হাসপাতাল সূত্রে খবর, কমপক্ষে ২০ বিদেশি পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে। নিরাপত্তাজনিত কারণে শ্রীলঙ্কায় সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখা হল।

কলম্বোর ন্যাশনাল হাসপাতালের মুখপাত্র ডা সামিধি সামারাকুন জানিয়েছেন, হাসপাতালে ৫০০ জন ভর্তি রয়েছেন। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন ৩৫ বিদেশি নাগরিক। রাজধানী কলম্বোয় মৃত্যু হয়েছে ৪৫ জনের, উত্তর কলম্বোর নেগোম্বর এরটি গির্জায় বিস্ফোরণে মারা গিয়েছেন ৬৭ জন এবং বাট্টিকালোয়ার একটি গির্জায় বিস্ফোরণে মৃত্য হয়েছে ২৫ জনের।

শ্রীলঙ্কার দৈনিক ডেইলি মিররের খবর অনুযায়ী, বাট্টিকালোয়ার একটি হোটেল ও চার্চে বিস্ফোরণ ঘটেছে। পাশাপাশি বিস্ফোরণ ঘটেছে সাংরি লা, সিনামোল গ্র্যান্ড ও কিংসবারি হোটেলে। এছাড়াও বিস্ফোরণ হয়েছে কোচ্চাইকাদের সেন্ট অ্যান্টনি চার্চে ও কাটুয়াপিট্টির সেন্ট সেবাস্টিয়ান চার্চে।

সাধারণভাবে রবিবার গির্জায় বিশেষ প্রার্থনা হয়ে থাকে। এদিন ইস্টার উপলক্ষ্যে বিশেষ প্রার্থনা হওয়ার কথা ছিল। ফলে গির্জাগুলি ছিল ভিড়ে ঠাসা। কলম্বো পুলিসের মুখপাত্র রুয়ান গুণশেখর সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, সকাল পৌনে নটা নাগাদ প্রথম বিস্ফোরণের খবর পাওয়া যায়। একটি বিস্ফোরণ হয়েছে কোচ্চাইকাদেরে।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment