দেশ 

জঙ্গী হামলায় শহীদ আইপিএস হেমন্ত কারকারে নাকি সাধ্বী প্রঞ্জার অভিশাপেই মারা গেছেন দাবি প্রঞ্জার ; অভিযোগ গুরুতর কমিশনে কংগ্রেসে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মুম্বইয়ের জঙ্গী হামলায় শহীদ দেশের অন্যতম সৎ আইপিএস অফিসার হেমন্ত কারকারে নাকি বিজেপির ভুপালের প্রার্থী সাধ্বী প্রঞ্জার অভিশাপে সন্ত্রাসবাদী হামলায় মারা গেছেন । এই দাবি করেছেন খোদ মালেগাঁও বিস্ফোরণে অভিযুক্ত বিজেপির প্রার্থী সাধ্বী প্রঞ্জা ।

তিনি দলের কর্মীদের কাছে সেদিনের অভিঞ্জতা বর্ননা করতে গিয়ে এই বিস্ফোরক অভিযোগ করেন । তাঁর অভিযোগ, তাঁর উপর পুলিসি অত্যাচারের নেতৃত্বে ছিলেন হেমন্ত। তাঁকে দিয়ে জোর করে মালেগাঁও বিস্ফোরণের সঙ্গে যুক্ত করতে চেয়েছিলেন।

প্রজ্ঞার দাবি, তিনি তখনই হেমন্তকে অভিশাপ দিয়েছিলেন। সেই কারণেই মুম্বই হামলার সময় হেমন্ত নিহত হয় বলে দাবি করেছেন বিজেপির প্রার্থী।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালে মালেগাঁও বিস্ফোরণ হয়। সেই বিস্ফোরণেই অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা। তিনি এখন জামিনে মুক্ত। সপ্তাহখানেক আগে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। তার পরই ভোপাল থেকে তাঁর নাম ঘোষণা করা হয়।

তাঁর নাম ঘোষণার পর থেকেই বিতর্ক ছড়িয়েছে। বিরোধীদের প্রশ্ন, সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত একজনকে বিজেপি কীভাবে প্রার্থী করে? যদিও সন্ত্রাসের অভিযোগ মানতে নারাজ প্রজ্ঞা। তাঁকে জোর করে এই মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে বলে তাঁর দাবি।

বৃহস্পতিবারের বিবৃতির পর কোনও বিতর্ক হয়নি। তবে শুক্রবার সাধ্বীর মন্তব্যের পর বিতর্ক চরমে উঠেছে। জল গড়িয়েছে নির্বাচন কমিশন পর্যন্ত।

উল্লেখ্য , সাধ্বী প্রঞ্জাকে কংগ্রেস নেতা দ্বিগবিজয় সিংহের বিরুদ্ধে প্রার্থী করা হয়েছে ।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment