জেলা 

চোপড়ায় ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের শিকার নিরীহ পথচারী সপ্তম শ্রেনির ছাত্র মহম্মদ আবদুল

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার দার্জিলিং, রায়গঞ্জ ও জলপাইগুড়ি এই তিনটি লোকসভা কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় ।গতকালই নির্বাচনের দিন ব্যাপক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে  ওঠে দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের চোপড়া। সেখানে সাধারন মানুষ দাবি করে কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ভোট দেবে না বেশ কয়েক ঘন্টা টানাপোড়েনের পর শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতিতে ভোট গ্রহণ হয় ।

কিন্ত ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসে আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল চোপড়া। শুক্রবার সাত সকালে বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষের মাঝে পড়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছে সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। গুলিবিদ্ধ ছাত্রের নাম মহম্মদ আবদুল।

শুক্রবার সকাল থেকে নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায় চোপড়ার মকদুমি এলাকায়। অভিযোগ, বিজেপি কর্মী সমর্থকরা এলাকায় এসে হামলা চালায়। পাল্টা প্রতিরোধ করে তৃণমূলও। এরপরই তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ শুরু হয়। চলে এলোপাথাড়ি গুলি, বোমাবাজি।

সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল সপ্তম শ্রেনির ছাত্র মহম্মদ আবদুল। গোলাগুলির মাঝে পড়ে তার বা পায়ে গুলি লাগে। আহত আবদুলকে দলুয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, আবদুলের পা এফোঁড় ওফোঁড় হয়ে গুলি বেড়িয়ে গেছে।

এবিষয়ে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য তথা তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, তারা প্রতিরোধ করতেই গুলি চালায় বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। যদিও তৃণমূলের বিরুদ্ধে পাল্টা গুলি চালনার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। এলাকায় আতঙ্ক। থমথমে পরিবেশ।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment