জেলা 

অধীর গড়ে দাঁড়িয়ে বহরমপুরের সাংসদকে বেনজির আক্রমণ মমতার ‘মুর্শিদাবাদ, বহরমপুর এবং জঙ্গিপুরে কংগ্রেসের হয়ে কাজ করছে আরএসএস‘

শেয়ার করুন
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মুর্শিদাবাদের অধীর গড় দাঁড়িয়ে অধীরকে হারানোর ডাক দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি বলেন ‘বাম আর রাম, মাঝে অধীর রাজ চলছে’ এই রাজের অবসান ঘটাতে হবে ।

বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরিকে হারানোর লক্ষ্যে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে কাজে লাগিয়েছেন  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । কারণ বাংলার এই মুহুর্তে কংগ্রেসের মুখ বলতে অধীর চৌধুরিই আছেন । একইসঙ্গে তিনি মমতার তীব্র বিরোধী । তাই বেলডাঙার মঞ্চ থেকে বিদায়ী সাংসদের বিরুদ্ধে সরব হন তৃণমূল নেত্রী৷

এদিন বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রের অধীন বেলডাঙায় নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, রাম, বাম ও কংগ্রেস এক হয়েছে৷ মুর্শিদাবাদ, বহরমপুর এবং জঙ্গিপুরে কংগ্রেসের হয়ে কাজ করছে আরএসএস৷ কেন এই আতাঁত তার কারণও প্রচার সভায় ব্যাখ্যা করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তাঁর কথায়, ‘‘আরএসএসের দফতরে গিয়েছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ সেই আনুগত্যবোধ থেকেই কংগ্রেসকে সাহায্য করছে আরএসএস৷’’

গোটা বাংলায় কংগ্রেস প্রায় সাইনবোর্ড৷ সেখানে মুর্শিদাবাদ জেলার তিনটি লোকসভা আসনের একটিও তৃণমূলের দখলে নেই৷ সেই আক্ষেপও এদিন শোনা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে৷ তিনি বলেন, ‘‘মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী সংগঠন বাড়াতে প্রচুর কাজ করেছে৷ এই জেলা থেকে বিধায়ক ও পঞ্চায়েতের সব স্তরে তৃণমূলের জনপ্রতিনিধি রয়েছেন৷ জেলা পরিষদও আমাদের৷ কিন্তু সাংসদ নেই৷ তাই এবার পালটে দিন৷’’

কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে গিয়ে এদিন তৃণমূল নেত্রী বলেন, ‘‘বামেদের সঙ্গে আতাঁত রয়েছে কংগ্রেসের৷ ওরা বামেদের তাড়াতে চায়নি৷ বিক্রি হয়ে গিয়েছে সিপিএমের কাছে৷ তাই আমি কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে যাই৷ তৃণমূলের আন্দোলনেই রাজ্যে বামেদের পরাজয় হয়েছে৷’’ আত্মবিশ্বাসী মমতার বক্তব্য জোড়াফুলের দাপটেই দিল্লি ছাডা় হবে মোদী সরকার৷

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment