দেশ 

সুপ্রিম কোর্টেও ধাক্কা খেলেন হার্দিক ; সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে লড়তে পারবেন না পাতিদার নেতা

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গুজরাত হাইকোর্টের পর সুপ্রিম কোর্টেও ধাক্কা খেলেন সদ্য কংগ্রেসে যোগ দেওয়া গুজরাতের পাতিদার নেতা হার্দিক পটেল। এর ফলে এ বছর লোকসভা নির্বাচনে লড়তে পারছেন না হার্দিক।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে গুজরাতে পাতিদার আন্দোলনের সময় হিংসায় মদত দেওয়ার অভিযোগ ওঠে হার্দিকের বিরুদ্ধে। গত বছর তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করে ২ বছরের কারাদণ্ড ঘোষণা করে গুজরাত আদালত। আপাতত জামিনে রয়েছেন তিনি। তবে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, জনপ্রতিনিধিত্ব আইনে আটকে যাচ্ছেন হার্দিক পটেল। কারণ, দোষী সাব্যস্ত ব্যক্তি ভোটে লড়তে পারেন না।

তাঁর বিরুদ্ধে চলা এই মামলার পর স্থগিতাদেশ চেয়ে গুজরাত হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন হার্দিক। কিন্তু স্থগিতাদেশ দেয়নি আদালত। ফলে এর বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে আবেদন করেন তিনি। অতি দ্রুত শুনানির আর্জিও করেন তিনি। তবে এ দিন শুনানির সময়ে, আদালত হার্দিককে জিজ্ঞেস করে, “কীসের এত তাড়া?” পাশাপাশি আপাতত গুজরাত হাইকোর্টের রায়ের ওপরে স্থগিতাদেশও দিচ্ছে না বলে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত।

আগামী ৪ এপ্রিলের মধ্যে তাঁর শাস্তি রদের মামলায় সুপ্রিম কোর্ট ইতিবাচক পদক্ষেপ না এ বছর আর ভোটে লড়া হচ্ছে না হার্দিকের। কারণ ওই দিনই গুজরাতের নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন।

গত মাসে আহমদাবাদের কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে ‘হাত’ ধরেন হার্দিক। ঠিক ছিল জামনগর কেন্দ্র থেকে তাঁকে প্রার্থী করবে কংগ্রেস। কিন্তু আপাতত আর ভোটে লড়া হচ্ছে না হার্দিকের। তবে হার্দিক জানিয়ে দিয়েছেন ভোটে না লড়তে পারলেও, দলের হয়ে প্রচার চালিয়ে যাবেন তিনি।


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment