আন্তর্জাতিক 

নির্বাচনের আগে কংগ্রেসের ৬৮৭টি ফেসবুক পেজ ও অ্যাকাউন্ট মুছে দিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করা এখন অপরিহার্য হয়ে উঠেছে । কিন্ত অভিযোগ উঠেছে কংগ্রেসের কয়েকশো পেজ নাকি মুছে দেওয়া হয়েছে ।এদিকেফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, কংগ্রেসের আইটি সেলের সঙ্গে যুক্ত ৬৮৭টি পেজ অ্যাকাউন্ট মুছে দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেসের তরফে অবশ্য বলা হয়েছে, ওই পেজঅ্যাকাউন্টগুলির সঙ্গে তাদের দলের যোগ নেই। ফেসবুকের পদক্ষেপে উৎফুল্ল বিজেপি। ছাড়া, পাকিস্তানের ১০৩টি পেজ ডিলিট করেছে ফেসবুক। ভারতীয় রাজনীতি, পাক সেনাবাহিনী পাক নেতাদের নিয়ে খবর ছড়াচ্ছিল এই সব পেজ।

ফেসবুকের সাইবার নিরাপত্তা নীতি সংক্রান্ত বিভাগের প্রধান নাথানিয়েল গ্লেইচার জানিয়েছেন, অনভিপ্রেত আচরণের জন্য ওই সব পেজ এবং অ্যাকাউন্টকে মুছে দেওয়া হয়েছে। কারণ, সেখান থেকে নেটিজেনদের উদ্দেশে অপ্রাসঙ্গিক বার্তা পাঠানো হচ্ছিল। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তিতে ধরা পড়েছে, ভারতে সঙ্ঘবদ্ধ ভাবে ফেসবুকের অপব্যবহার করছে ৬৮৭টি প্রোফাইল এবং অ্যাকাউন্ট। গুলি কংগ্রেসের আইটি সেলের সঙ্গে যুক্ত লোকজন নিয়ন্ত্রণ করছিলেন। এই ধরনের অপব্যবহার রুখতে লাগাতার কাজ করে চলেছি, যাতে ফেসবুকের  দ্বারা মানুষকে প্রভাবিত না করা যায়।’’

আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে গ্রাহকদের প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছিল ফেসবুকের বিরুদ্ধে। ওই ঘটনার প্রেক্ষিতে গত ফেব্রুয়ারিতে ফেসবুক, হোয়াটস্অ্যাপ, ইনস্টাগ্রামের মতো সোশ্যাল মিডিয়ার আধিকারিকদের বৈঠকে ডেকেছিল সংসদের স্ট্যান্ডিং কমিটি। বলা হয়েছিল, লোকসভা নির্বাচনের সময় সোশ্যাল মিডিয়ার নিরাপত্তায় জোর দিতে হবে। বন্ধ করতে হবে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট এবং পেজের বাড়বাড়ন্ত। 

গ্লেইচার আজ জানিয়েছেন, যে অ্যাকাউন্টগুলি মুছে দেওয়া হয়েছে সেগুলি থেকে রাজনৈতিক পোস্ট এবং স্থানীয় খবর পোস্ট করা হত। পোস্ট থাকত লোকসভা নির্বাচন এবং প্রার্থীদের নিয়েও। বিজেপির সমালোচনা করতে কংগ্রেসের আইটি সেল ওই অ্যাকাউন্টগুলি ব্যবহার করত। ফেসবুকের ওই কর্তার কথায়, ‘‘পরিচয় লুকিয়ে ভুয়ো অ্যাকাউন্টগুলি খোলা হয়েছিল। এগুলির পিছনে যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের আড়াল করাই ছিল উদ্দেশ্য। আমরা খোঁজ পেয়েছি, ওই অ্যাকাউন্টগুলির সঙ্গে জড়িতেরা কংগ্রেসের আইটি সেলের সঙ্গে যুক্ত।’’

কংগ্রেসের মুখপাত্র মণীশ তিওয়ারি তড়িঘড়ি কোনও প্রতিক্রিয়া জানাতে চাননি। তাঁর প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘‘খবরের সত্যতা যাচাই করতে হবে। আগে দেখতে হবে, ফেসবুকের কতগুলি পেজ আমাদের সঙ্গে যুক্ত।’’ পরে অবশ্য কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়, ফেসবুক যে পেজঅ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করেছে, তার সঙ্গে তাদের দলের কোনও যোগ নেই। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের বক্তব্য, ‘‘অ্যাকাউন্টগুলির ব্যবহারকারীদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। ভুয়ো অ্যাকাউন্টগুলি থেকে নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা কথা প্রচার করা হত।’’ আর এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেন, ‘‘ফেসবুক কংগ্রেসের প্রকৃত চরিত্র প্রকাশ করে দিয়েছে।’’ বর্তমানে ভারতে প্রায় কুড়িকোটি লোক ফেসবুক ব্যবহার করেন। ৬৮৭টি পেজ অ্যাকাউন্ট মুছে দেওয়া হয়েছে, সেগুলি থেকে ৩৯ হাজার ডলার বিজ্ঞাপন দেওয়া হত ফেসবুককে। 

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশের অনুমান, কোনও নির্দিষ্ট পেজ অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে নির্দিষ্ট সংখ্যক রিপোর্ট হলে তার ভিত্তিতে ফেসবুকের নিজস্ব সিস্টেম ব্যবস্থা নেয়। কংগ্রেসের সাইবার হাতিয়ারকে অকেজো করতে বিজেপি সম্ভবত গণরিপোর্টের কৌশল নিয়েছিল।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment