কলকাতা 

সংঘবদ্ধ আন্দোলনই পারে রাষ্ট্র-শক্তিকে মাথানত করাতে তা আরও এক প্রমাণ করলেন এসএসসির চাকরি প্রার্থীরা

শেয়ার করুন
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বুলবুল চৌধুরি : দাঁতে দাঁত চেপে নিজেদের দাবিকে জোর গলায় তুলে ধরার লক্ষ্যে কলকাতার মেয়ো রোডে অনশনে বসেছিলেন এসএসসির চাকরি প্রার্থীরা । তাঁদের দাবি ছিল স্বচ্ছভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাতে হবে । নিয়োগে নাকি দূনীর্তি হয়েছে । আর অনশনকারী এমপ্যানেল্ড ওয়ের্টিং লিষ্টে থাকা সকলকেই চাকরি দিতে হবে । গত ২৮ ফেব্রূয়ারি অনশনে বসেছিলেন ৩৫০ থেকে ৪০০জন চাকরি প্রার্থী । টানা অবস্থানে এখন পর্যন্ত ৮৫ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে । এদের মধ্যে দুজন মহিলার গর্ভপাত হয়ে গেছে । তবু ওরা আন্দোলন থেকে দূরে সরে যাননি ।

চালিয়ে গেছেন অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি ও রিলে অনশন । এভাবে চলছিল বামনেতা সুজন চক্রবর্তী থেকে সোমেন মিত্র , বিমান বসু রাহুল সিনহারা এসেছেন কথা বলেছেন আর চলে গেছেন। রাজনৈতিক বক্তব্য রেখে যে যার দায় সেরেছেন । কিন্ত ওরা কালবৈশাখির ঝড়কে উপেক্ষা করে নিজেদের অনড় অবস্থান থেকে সরে যাননি ।

 

কয়েকটি নিউজ পোর্টাল ছাড়া কোনো বড় গণমাধ্যম প্রথমে সেভাবে খবরটিকে গুরুত্ব দেয়নি । এমনকি সরকারও মনে করেছিল কয়েকদিন পরেই এরা সব চলে যাবে । কিন্ত না কোনোভাবে এদেরকে অনড় অবস্থান থেকে সরানো যায়নি । আস্তে আস্তে সমর্থন বাড়তে থাকল । এলেন বুদ্ধিজীবীরা । প্রবীণ কবি শঙ্খ ঘোষ এই আন্দোলনকে সমর্থন জানালেন , কবি মান্দাক্রান্ত সেন অনশনকারীদের সঙ্গে অনশনে সামিল হলেন । শেষ পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেসের ঘনিষ্ট বলে পরিচিত কবি সুবোধ সরকার ও কবির সুমনও আন্দোলনকারীদের অবস্থানকে সমর্থন জানালেন । কবির সুমন সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে অনশন মঞ্চে আসার আহ্বান জানান । মানবিক মুখ মমতাদি  অনশন মঞ্চে এলেন । এক নিমেষেই তিনি সমাধান করে দিলেন । আসলে তিনিই এই রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী তাই আর একটু আগে এলে সমস্যার সমাধানটা তাড়াতাড়ি হত ।

যাই হোক শেষ পর্যন্ত আন্দোলনকারীদেরই জয় হল । তারা নিজেদের ঐক্যবদ্ধ রেখে আন্দোলনকে জারি রাখতে পেরেছিল বলেই তা সম্ভব হয়েছে । এই জয় আন্দোলনের জয় । এই জয় প্রেরণা যোগাবে আগামী দিনের আন্দোলনকারীদের । এই জয় শিক্ষা দেবে রাষ্ট্রশক্তিকে । সবার উপরে মানুষ বড় এটাই এসএসসির চাকরি প্রার্থীদের আন্দোলনের জয়ের প্রধান শিক্ষা ।


শেয়ার করুন
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment