কলকাতা 

”আমি রাজ্য সরকারকে অনুরোধ জানাচ্ছি যথোপযুক্ত সহানুভূতির সঙ্গে এই সমস্যার সমাধান করুন “ এসএসসি-র চাকরি প্রার্থীদের আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে রাজ্য সরকারকে খোলা চিঠি বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের

শেয়ার করুন
  • 92
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : এসএসসি-র চাকরি প্রার্থীদের অনশন কর্মসূচি ২৫দিনে পা দিল । এখনও পর্যন্ত কোনো সমাধান সূত্র বের হয়নি । যদিও রাজ্য সরকার আন্দোলনকারীদের দাবি-দাওয়া খতিয়ে  দেখার জন্য শিক্ষা সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করেছে ।

সেই কমিটি আন্দোলনকারীদের দাবিগুলি খতিয়ে দেখে বিচার-বিবেচনা করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে । কিন্ত কমিটি গঠন হওয়ার পরও আন্দোলনকারীরা অনশন কর্মসূচি প্রত্যাহার করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন । তাঁদের দাবি সমস্যার সুষ্ঠ সমাধান ও গেজেট নোটিফিকেশন মেনে নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত তা অনশন কর্মসূচি প্রত্যাহার করবেন না ।

এদিকে অনশনকারী এসএসসি-র চাকরি প্রার্থীদের দাবি সপক্ষে এবার সরাসরি রাজ্য সরকার খোলা চিঠি লিখলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় । তিনি ওই খোলা চিঠিতে লিখেছেন , “ যে গেজেট নোটিফিকেশন মেনে নিয়োগ হওয়া উচিত তা মেনে চলা হচ্ছে না । এরই প্রতিবাদে কলকাতার রাস্তায় বিগত ২৫ দিন ধরে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন প্রায় ৪০০ জন তরুণ-তরুণী । কিন্ত রাজ্য সরকার সব দেখেও কোনও সদর্থক ব্যবস্থা নিচ্ছেন না “ ।

“ এই উদাসীনতা যে হৃদয়হীনতা ও নিষ্ঠূরতার পর্যায়ে পৌঁছেছে তা আমাদের কাছে অতীব বেদনাদায়ক মনে হয়েছে । আমি রাজ্য সরকারকে অনুরোধ জানাচ্ছি যথোপযুক্ত সহানুভূতির সঙ্গে এই সমস্যার সমাধান করুন “। বর্ষীয়ান অভিনেতার এই খোলা চিঠির পর রাজ্য সরকার কোনো বিশেষ পদক্ষেপ করে কিনা সেদিকেই তাকিয়ে রয়েছে রাজ্যের শিক্ষা মহল ।

অনশনকারীদের সঙ্গে অনশন করেছেন বিশিষ্ট কবি মান্দাক্রান্ত সেন , সহ বামপন্থী কর্মীরা । অন্যদিকে বিভিন্ন রাজনীতিবিদ এই সভায় এসে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সহমত ব্যক্ত করে গেছেন । এমনকি কবি শঙ্খ ঘোষও অনশনকারীদের দাবিকে সমর্থন জানিয়েছেন । কিন্ত এখন রাজ্য সরকার এ বিষয়ে কমিটি গঠন করা ছাড়া কোনো সদর্থক পদক্ষেপ নেয়নি । এদিকে, অনশন মঞ্চকে ঘিরে আজও কয়েক জনের অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে । এই পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার পদক্ষেপ না নিলে নির্বাচনে প্রভাব পড়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে ।


শেয়ার করুন
  • 92
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment