কলকাতা 

‘দু’কেজি সোনা সহ ধরা পড়লে, তা বাজেয়াপ্ত কেন করা হয়নি? স্ত্রীকে ছেড়ে দেওয়া হল কেন? ৭ দিন পরে কেন এফআইআর করা হল? চৌকিদার কি ঘুমোচ্ছিলেন? এটা বিজেপি-সিপিএম-কংগ্রেসের চক্রান্ত : অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গতকালই কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয় সাংসদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রীর বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে শুল্ক দফতর । যদিও ঘটনাটি প্রায় এক সপ্তাহ আগেই ঘটেছে বলে জানা গেছে । কিন্ত কেন এত দেরিতে এফআইআর করা হল তা নিয়ে অবশ্যই প্রশ্ন তোলা যেতে পারে । এই খবর প্রকাশের পর লোকসভা নির্বাচনের আগে অস্বস্তিতে পড়ে যায় তৃণমূল ।

তাই শেষ পর্যন্ত সোনাপাচারের বিষয়টি নিয়ে রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করেন ডায়মন্ডহারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় । তিনি এদিন সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন , সোনা সহ বিমানবন্দরে তাঁর স্ত্রীকে আটক করার খবরের কোনও সত্যতা নেই, এই খবর সম্পূর্ণ বিজেপি-সিপিএম-কংগ্রেসের চক্রান্ত৷ ভোটের মুখে বিজেপি এই অপপ্রচার চালাচ্ছে৷ কারণ ব্যক্তিগত আক্রমণ বিজেপির সংস্কৃতি৷

রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘বিমানবন্দরে সোনাসহ তাঁর স্ত্রীর ধরা পড়ার ঘটনা সত্য নয়৷’ এরই সঙ্গে তিনি বেশ কিছু প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন ‘দু’কেজি সোনা সহ ধরা পড়লে, তা বাজেয়াপ্ত কেন করা হয়নি? স্ত্রীকে ছেড়ে দেওয়া হল কেন? ৭ দিন পরে কেন এফআইআর করা হল? চৌকিদার কি ঘুমোচ্ছিলেন? বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে বলেই কি এই গাত্রদাহ?’

অভিষেক জানান, তাঁকে ফাঁদে ফেলতে না পেরে তাঁর স্ত্রীকে হেনস্তা করা হচ্ছে৷ এরপরে তার পাঁচ বছরের মেয়েকেও টার্গেট করা হবে৷ দিল্লির চাপেই শুল্ক দফতর এই কাজ করেছে অভিযোগ তাঁর৷

শুল্ক দফতর সিসিটিভি ফুটেজ সামনে এনে প্রমাণ করলে রাজনীতি থেকেও তিনি সরে আসবেন বলে চ্যালেঞ্জ জানান তিনি৷ ‘ভোটের মুখে মানুষকে বিভ্রান্ত করে ফায়দা লোটার চেষ্টা করছে বিজেপি’, সরাসরি তোপ দাগেন অভিষেক৷ সেই সঙ্গে তিনি সাফ জানান, ‘ব্যক্তিগত আক্রমণ বিজেপির সংস্কৃতি, তৃণমূল ব্যক্তিগত আক্রমণে বিশ্বাসী নয়৷ ‘


শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment