কলকাতা 

বিতর্কিত মন্তব্য করার দায়ে অনুব্রত ও জিতেন্দ্রকে শোকজ করল নির্বাচন কমিশন ; রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বিষয়ে রিপোর্ট তলব কমিশনের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : লোভ দেখিয়ে ভোট আদায় করার ফতোয়া দেওয়ার জন্য এবার কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে নির্বাচন কমিশন । জানাগেছে , তৃণমূল নেতা অনুব্রত মন্ডল ও জিতেন্দ্র তেওয়ারিকে শোকজ করেছে কমিশন । তিওয়ারি বলেছিলেন , “৫ হাজারের বেশি লিড দিতে পারলেই, এক কোটি টাকার সরকারি কাজের বরাত পাওয়া যাবে।” অন্যদিকে, ‘চোখ গেলে দেওয়ার’ মন্তব্যের জন্য অনুব্রত মণ্ডলকেও শোকজ করেছে কমিশন। পাশাপাশি, নির্বাচন কমিশন রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে নিয়েও রিপোর্ট তলব করেছে ।

উল্লেখ্য, ফিরহাদ হাকিম, অনুব্রত মণ্ডল, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও জিতেন তিওয়ারি- তৃণমূলের এই ৪ নেতার বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের কাছে আদর্শ আচরণ বিধিভঙ্গের অভিযোগ করে বিজেপি। তৃণমূলের এই ৪ নেতাকে গোটা নির্বাচন প্রক্রিয়া থেকে বাদ দিতে হবে। তাঁদের নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে হবে। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিকের কাছে দাবি জানায় তারা। অভিযোগের ভিত্তিতে এরপরই অনুব্রত মণ্ডল ও জিতেন তিওয়ারিকে শোকজের সিদ্ধান্ত নিল কমিশন।

অনুব্রত মণ্ডলের সঙ্গেই বিতর্কিত, উস্কানিমূলক মন্তব্যের তালিকায় এবার নয়া সংযোজন আসানসোলের মেয়র জিতেন তিওয়ারি। মঙ্গলবার কর্মিসভায় দলীয় কর্মীদের তিনি টোপ দেন, ”ওয়ার্ড থেকে ৫ হাজারের বেশি লিড দিতে পারলেই, এক কোটি টাকার সরকারি কাজের বরাত পাওয়া যাবে।” আরও বলেন, “ফাস্ট, সেকেন্ড, থার্ড- যেরকম লিড, সেই অনুযায়ী থাকবে পুরস্কার।”

বলেন, “৩ হাজারের বেশি লিড হলে ৫০ লাখ টাকার সরকারি কাজের বরাত দেওয়া হবে। ৩০ লাখ টাকার সরকারি কাজের বরাত দেওয়া হবে ২ হাজারের বেশি লিড হলে।” পাশাপাশি লিড দিতে না পারলে শাস্তির ব্যবস্থাও থাকছে বলে হুঁশিয়ারি দেন আসানসোল মেয়র। বলেন, “যে ওয়ার্ডে  লিড মিলবে না, সেখানকার কাউন্সিলরকে ইস্তফা দিতে হবে।” জিতেন তিওয়ারির এই মন্তব্যের পরই বিতর্ক ছড়ায়।

অন্যদিকে, উত্তরবঙ্গ মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বিরোধীদের ‘করলার জুস’ খাওয়ানোর কথা বলে বিতর্ক জড়ান।

কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়েও বিতর্কিত মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ”কেন্দ্রীয় বাহিনী নির্বাচনের পর থাকবে না, আমরা থাকব সারা বছর। ভোটটা জোড়া ফুলেই দেবেন।”


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment