দেশ 

হাত-পা বেঁধে ভোটারদের তুলে নিয়ে আসার ‘পরামর্শ’ ইয়েদুরাপ্পার, হার নিশ্চিত বুঝেই বেফাঁস মন্তব্য, তোপ কংগ্রেসের

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব নিউজডেস্কঃ কর্ণাটকে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী বিএস ইয়েদুরাপ্পা। আগে কর্ণাটকের মূখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বও সামলেছেন তিনি। বিজেপির এই অভিজ্ঞ নেতাই নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন। শনিবার বেলগাভি জেলার কিট্টুর আসনে দলীয় প্রার্থী মহনতেশ দোড্ডাগৌদার হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন তিনি। কর্মীদের চাঙ্গা করার উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ কেউ যদি ভোট দিতে না গিয়ে বাড়িতে বসে থাকেন, তাহলে তাঁর হাত-পা বেঁধে তাঁকে বিজেপির হয়ে ভোট দিতে নিয়ে আসুন’। কর্ণাটকে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর এই বক্তব্যে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্যজুড়ে।
কর্ণাটকের বর্তমান শাসক দল কংগ্রেসের অভিযোগ, নির্বাচনে হার নিশ্চিত জেনেই এই ধরনের হতাশা মূলক মন্তব্য করেছেন বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী।
প্রসঙ্গত, কর্নাটকে বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এখনও পর্যন্ত যে কয়টি সংস্থা জনমত সমীক্ষা করেছে, তাতে প্রত্যেকটিতেই রাজ্যে কংগ্রেসই ফের ক্ষমতায় আসছে বলে স্পষ্ট ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। আর আসাদউদ্দিন ওয়াইসির মজলিস-ই-ইত্তেহাদ-উল মিসলেমীন (মিম) এবার কর্নাটক বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা না করায় সেই সম্ভাবনা আরো জোরালো হয়ে উঠেছে।
রাজনীতি বিশ্লেষকদের ব্যাখ্যা, এরফলে কর্নাটকে দলিত-মুসলিম ভোটের অধিকাংশই কংগ্রেসের ঝুলিতে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। যদি তাই হয় তাহলে বিপদে পড়তে পারে বিজেপি। অন্যদিকে ফের সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পেয়ে কর্ণাটকের মসনদে বসতে পারে সিদ্দদারামাইয়ার কংগ্রেস।
এদিকে, বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর এই বেফাঁস মন্তব্যকে হাতিয়ার করে প্রচারে নেমেছে কংগ্রেস। দলের মুখপাত্র রনদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, ‘ নির্বাচনে বিজেপি যে নিশ্চিত হারছে, তা বুঝে গিয়েছে দলীয় নেতৃত্ব। সেই হতাশা থেকেই এই ধরনের মন্তব্য করেছেন তারা।’
উল্লেখ্য, আগামী ১২ ও ১৫ মে বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে কর্ণাটকে। দক্ষিণ ভারতের এই রাজ্যে নির্বাচনকে ঘিরে সারা দেশের মানুষের আগ্রহ রয়েছে। অনেকেই ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে কর্নাটক বিধানসভা নির্বাচনকে কংগ্রেস ও বিজেপি দুই দলের কাছে সেমিফাইনাল হিসেবেই দেখছেন। তাই এই রাজ্যটিতে জয় পেতে মরিয়া বিজেপি। অন্যদিকে, যেকোনও প্রকারে এই রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখতে চাইছে সিদ্দারামাইয়ার কংগ্রেস।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, যদি এবারের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস কর্ণাটকে ক্ষমতা ধরে রাখতে পারে, তাহলে ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে মোদি বিরোধী জোটের অন্যতম নির্ণায়ক হবেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুুল গান্ধী। আর সেক্ষেত্রে লোকসাভা নির্বাচনের আগে কংগ্রেস কর্মীরাও অনেকটাই অক্সিজেন পেয়ে যাবে। অার যদি ফল এর উল্টো হয়, তাহলে নরেন্দ্র মোদির বিজয়রথ কারোর পক্ষেই আটকানো সম্ভব হবে না।


শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment